লভ্যাংশ ঘোষণা

মাইডাস ফাইন্যান্সিংয়ের ২.৫% লভ্যাংশ ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক: ২০১৮ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাববছরে নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে বিনিয়োগকারীদের জন্য দুই দশমিক পাঁচ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে মাইডাস ফাইন্যান্সিং লিমিটেড। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
তথ্যমতে, কোম্পানিটি ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮ সমাপ্ত হিসাববছরে দুই দশমিক পাঁচ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। আলোচিত সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৯ পয়সা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১০ টাকা ৯৮ পয়সা। ঘোষিত লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য আগামী ২৫ জুলাই বেলা ১১টায় রাজধানীর ধানমন্ডি ১৬ নং রোডে অবস্থিত মাইডাস কনভেনশন সেন্টারে (মাইডাস সেন্টার, হাউজ-৫, রোড -১৬ নতুন, ২৭ পুরাতন, ধানমন্ডি) বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হবে। এ জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ২৫ জুন।
এদিকে সর্বশেষ কার্যদিবসে ডিএসইতে শেয়ারদর চার দশমিক ২২ শতাংশ বা ৭০ পয়সা বেড়ে প্রতিটি সর্বশেষ ১৭ টাকা ৩০ পয়সায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দর ছিল ১৭ টাকা ৫০ পয়সা। ওইদিন কোম্পানিটির সাত লাখ ৬২ হাজার ৭৭৩টি শেয়ার মোট ৬১২ বার হাতবদল হয়, যার বাজারদর এক কোটি ৩৪ লাখ ৯১ হাজার টাকা। ওইদিন দিনভর শেয়ারদর সর্বনিন্ম ১৬ টাকা ৬০ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ ১৮ টাকা ৩০ পয়সায় ওঠানামা করে। এক বছরের মধ্যে শেয়ারদর ১৪ টাকা ২০ পয়সা থেকে ৩৫ টাকায় ওঠানামা করে।
এর আগে ২০১৭ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে ১০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ দিয়েছে। ওই সময় কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে এক টাকা ৮১ পয়সা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১১ টাকা ৯৮ পয়সা। কোম্পানিটি ২০০২ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়ে বর্তমানে ‘এ’ ক্যাটেগরিতে অবস্থান করছে। ২০০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ১৩২ কোটি ২৯ লাখ ৬০ হাজার টাকা। রিজার্ভের পরিমাণ ১১ কোটি ৭৫ লাখ ৬০ হাজার টাকা। কোম্পানিটির ১৩ কোটি ২২ লাখ ৯৫ হাজার ৫৪৩টি শেয়ার রয়েছে। কোম্পানির মোট শেয়ারের মধ্যে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের কাছে রয়েছে ৩৯ দশমিক ২৬ শতাংশ শেয়ার, প্রাতিষ্ঠানিক ২৮ দশমিক ২৭ শতাংশ, বিদেশি বিনিয়োকারীদের এক দশমিক ৯৬ শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে রয়েছে ৩০ দশমিক ৫১ শতাংশ শেয়ার।

সর্বশেষ..