বিশ্ব বাণিজ্য

মার্কিন পণ্যে শুল্কারোপ আর মেনে নেওয়া হবে না

ভারতকে ট্রাম্পের সতর্কবার্তা

শেয়ার বিজ ডেস্ক: মার্কিন পণ্যের ওপর শুল্ক আরোপ নিয়ে ভারতের ওপর আবারও ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। গত মঙ্গলবার এক টুইট বার্তায় তিনি বলেছেন, দেশটিকে প্রচুর সময় দেওয়া হয়েছে। শুল্ক আরোপ আর মেনে নেওয়া হবে না বলেও সতর্ক করেন তিনি। খবর: সিএনবিসি।
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই বাড়ছে ভারত ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যকার বাণিজ্যবৈষম্য। ২০১৬ সালে দেশ দুটির দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্যের পরিমাণ দাঁড়ায় ১১ হাজার ৫০০ কোটি ডলার। তবে ট্রাম্প প্রশাসন চায় তিন হাজার ১০০ কোটি ডলারে নেমে আসুক। আর ঘাটতিতে পড়–ক ভারত।
গত ৫ জুন ভারতের বিশেষ বাণিজ্য সুবিধা জিএসপি বাতিল করে যুক্তরাষ্ট্র। ২০১৮ সালে জিএসপি প্রকল্পের আওতায় ভারত ৬০০ কোটি ডলারের পণ্যে শুল্কমুক্ত সুবিধা পেয়েছিল। আর তারা রফতানি করেছিল পাঁচ কোটি ৫০ লাখ ডলারের পণ্য। অন্যদিকে ভারতের কাছে ৩৩০ কোটি ডলারের পণ্য বিক্রি করে যুক্তরাষ্ট্র। ভারসাম্যের এ তারতম্যেই বিচলিত হয়ে পড়েন ট্রাম্প। ২০১৮ সালেই বাণিজ্য ঘাটতি নেমে আসে দুই হাজার ১৩০ কোটি ডলারে, আগের বছর যা ছিল দুই হাজার ২৯০ কোটি ডলার। ২০১৬ সালে এর পরিমাণ ছিল দুই হাজার ৪৪০ কোটি ডলার।
বাণিজ্য সম্পর্কের বাইরেও ভারতের প্রতি অসন্তুষ্টি রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের। রাশিয়া থেকে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা না কিনতে দিল্লিকে সতর্ক করে দিয়েছে তারা। যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক মিত্র তুরস্কসহ ইরান, সিরিয়া ও চীনও এই অস্ত্রের দিকে ঝুঁকছে। তুরস্ক এরই মধ্যে জানিয়ে দিয়েছে, তারা এটা কিনবেই। ভারতও যুক্তরাষ্ট্রের চাপকে পাত্তা দেয়নি।
এদিকে জিএসপি বাতিলের সিদ্ধান্তকে ‘দুর্ভাগ্যজনক’ বলে উল্লেখ করে জাতীয় স্বার্থ অক্ষুন্ন রাখার ঘোষণা দেয় ভারত। এর ধারাবাহিকতায় ২৮টি মার্কিন পণ্যে পাল্টা শুল্ক আরোপ করে দিল্লি। এই শুল্ক প্রত্যাহার করে নিতে গত মাসে ভারতকে আহ্বান জানান মার্কিন প্রেসিডেন্ট।
পরে জাপানে অনুষ্ঠিত জি-টোয়েন্টি সম্মেলনের পার্শ্ববৈঠকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ মোদির সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য আলোচনা আবারও শুরু করতে সম্মত হন ট্রাম্প। সেই ধারাবাহিকতায় আগামী সপ্তাহে মার্কিন বাণিজ্য প্রতিনিধিদলের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের ভারত সফরের কথা রয়েছে। এর মধ্যে মঙ্গলবার টুইট বার্তায় ভারতের শুল্ক আরোপের কড়া সমালোচনা করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

সর্বশেষ..