যশোরে হবে দুটি অর্থনৈতিক জোন

শেয়ার বিজ প্রতিনিধি, যশোর : যশোরে দুটি অর্থনৈতিক জোন হচ্ছে। সদরের আরবপুরে ৫০০ একর এবং ঝিকরগাছায় ৪০০ একর জমির ওপর এ জোন করা হবে। চলতি মাসেই এ-সংক্রান্ত ফাইল প্রধানমন্ত্রীর কাছে যাবে। আর আগামী দুই বছরের মধ্যে কাজ শুরু করা হবে। গতকাল সোমবার বিকালে যশোর সার্কিট হাউজে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এ কথা বলেন বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের (বেজা) নির্বাহী চেয়ারম্যান পবন চৌধুরী।

মতবিনিময়ে তিনি জানান, সরকার সারা দেশে ১০০টি অর্থনৈতিক জোন স্থাপনের কাজ হাতে নিয়েছে। যার মধ্যে ২৩টির কাজ শুরু হয়েছে। বাকিগুলোর কাজও দ্রুতগতিতে শুরু করা হবে। যার মধ্যে যশোরে দুটি থাকবে। কেননা যশোর অনেক গুরুত্বপূর্ণ জেলা। এখানে রয়েছে দেশের সর্ববৃহৎ স্থলবন্দর বেনাপোল, যেখান থেকে সরকার বছরে চার হাজার কোটি টাকার রাজস্ব পেয়ে থাকে। আছে বিমানবন্দর, নওয়াপাড়া নৌবন্দর। পাশে আছে মোংলা সুমদ্রবন্দর ও ভোমরা স্থলবন্দর। যশোর থেকে সড়ক যোগাযোগ রয়েছে সব জেলার সঙ্গে। যে কারণে এ জেলায় অর্থনৈতিক জোন হলে সবাই উপকৃত হবে। একই সঙ্গে এ অঞ্চলের মানুষের কর্মসংস্থান বাড়বে।

তিনি বলেন, জমি অধিগ্রহণের সময় জমিদাতাকে তিন গুণ মূল্য দেওয়া হবে। একই সঙ্গে তিনি কর্মসংস্থানেও অগ্রধিকার পাবে। যশোরের অর্থনৈতিক জোনে শিল্প পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস থাকবে। নেওয়া হবে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা। এখানে অটোমোবাইল কারখানাসহ মালট্রি প্রডাক্ট পণ্য উৎপাদন হবে। মাত্র তিন বছরে আমরা দেশে পাঁচটি অর্থনৈতিক জোন স্থাপন করেছি। যেখানে এক দশমিক তিন মিলিয়ন ডলারের শিল্প স্থাপন হয়েছে। বর্তমানে বেজার দখলে তিন লাখ কোটি টাকার জমি রয়েছে। ব্যাংক ডিপোজিট আছে কয়েকশ’ কোটি টাকা।

মতবিনিময়কালে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক আশরাফ উদ্দিন, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মাজেদুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. মামুনুজ্জামান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হুসাইন শওকত, সহকারী কমিশনার (ভূমি) জাকির হাসান প্রমুখ।