যুক্তরাষ্ট্রে ভয়াবহ তুষারঝড়ে ৩ জনের মৃত্যু

শেয়ার বিজ ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রে গত শনিবার উপসাগরীয় অঞ্চল থেকে গ্রেট লেক অঞ্চল পর্যন্ত বয়ে যায় জোরালো তুষার ঝড়। নেব্রাস্কা ও উইসকনসিনে গাড়ি দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় দুই গাড়িচালকের। লুইজিয়ানায় অস্থায়ী ছাউনি উড়ে গিয়ে মৃত্যু হয় দু?বছরের শিশুকন্যার।
তুষারপাত, বৃষ্টি, ঘণ্টায় প্রায় ৯০ কিলোমিটার বেগে ঝড়োহাওয়ায় গাছ, বিদ্যুতের খুঁটি উপড়ে পরে, রাস্তা ভেঙে বিপর্যস্ত হয়ে যায় জীবনযাত্রা। কম দৃশ্যমানতার কারণে মিনিয়াপোলিসের পল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ও দক্ষিণ ডাকোটার সিয়োক্স ফল্স বিমানবন্দর বন্ধ করে দেয় কর্তৃপক্ষ। বাতিল হয় ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক মিলিয়ে প্রায় ৪০০ ফ্লাইট।
গতকাল রোববার মিনিয়াপোলিসের বিমানবন্দর ফের খুললেও বন্ধ দক্ষিণ ডাকোটার বিমানবন্দর। প্রায় ৩৩ সেন্টিমিটার তুষারে ঢেকে যায় মিনিয়াপোলিস। উইসকনসিন ঢেকে গেছে প্রায় ৪৬ সেন্টিমিটার তুষারে। মিনেসোটা, উইসকনসিন, মিনিয়াপোলিসে গতকালও তুষারপাতের সম্ভাবনার কথা বলেছেন আবহাওয়াবিদরা। ফলে পরিস্থিতি আরও খারাপ হওয়ার ইঙ্গিত রয়েছে। মিশিগান হ্রদ সংলগ্ন এলাকায় জলোচ্ছ্বাসের জেরে বন্যার আশঙ্কা করছেন আবহাওয়াবিদরা।
মিনেসোটার সেন্ট পল শহরে জারি করা হয়েছে ‘স্নো এমার্জেন্সি’। তুষার পড়ছে ঘণ্টায় ১ থেকে ২ ইঞ্চি (২ থেকে ৫ সেন্টিমিটার) করে।
যে হারে তুষারপাত হচ্ছে, তাতে আবহবিদরা মনে করছেন, মিনেসোটা, মিশিগান ও উইসকনসিনে এ বার ১ ফুট পুরু তুষার জমবে। ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিস (এনডব্লিউএস) জানিয়েছে, ডুলুথ ও মিনেসোটায় ঝড় বইবে ঘণ্টায় ৫০ মাইল বা ৮০ কিলোমিটার গতিবেগে।