শোবিজ

রাজনীতিতে মিমি-নুসরাত

শোবিজ ডেস্ক: অভিনয় থেকে রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত হলেন টালিউডের দুজন তারকা মিমি চক্রবর্তী ও নুসরাত জাহান। রুপালি ভুবনে তাদের পথচলা। যার সুবাদে মানুষের কাছে তাদের গ্রহণযোগ্যতা বেশ। সেই সিনেমার পর্দার পাশাপাশি রাজনীতির মাঠেও নেমে এ দুই তারকা সফল হওয়ার আশা করছেন।
কলকাতা সিনেমার জনপ্রিয় এ নায়িকাদ্বয় আগামী লোকসভা নির্বাচনে মমতা ব্যানার্জির তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে অংশ নেবেন। এর মধ্যে নুসরাত জাহান নির্বাচন করবেন বশিরহাট ও মিমি চক্রবর্তী লড়বেন যাদবপুর আসন থেকে।
শোবিজ জগতের মানুষ রাজনীতি বোঝে না এমন অভিযোগ তুলে অনেকেই নুসরাত ও মিমির সমালোচনা করছেন। তবে এ বিষয়ে একদমই কর্ণপাত করছেন না তারা। এ বিষয়ে মিমি বলেন, আমি নিঃশর্ত ভালোবাসায় আস্থা রাখি। মানুষকে ভালোবেসে তাদের উপকারে এলে মানুষ নিশ্চয়ই আমার পাশে থাকবে। এটা আমার দৃঢ় বিশ্বাস। আর আমি তো কাজপাগল মানুষ। দলের নির্দেশে কাজ করব। এদিকে মিমি দেবের প্রসঙ্গ তুলে বলেছেন, দেবকে দেখুন। ঘাঁটালে ফাটিয়ে কাজ করেছে। ছবি করছে। প্রযোজনা সংস্থায় মন দিয়েছে। চাইলে মানুষ সব পারে। রাজনীতিতে দেব আমার অনুপ্রেরণা। তিনি আরও জানান, নুসরাতের সঙ্গে মিলেই তিনি নির্বাচনী প্রচার চালাবেন। নুসরাত খুব খুশি। আমি নিশ্চিত, এ যুদ্ধে আমাদের জয় হবেই।
নির্বাচনের প্রার্থী নুসরাত জাহান বলেন, সারা জীবন বাড়িতে, সিনেমায় অনেক কাজের দায়িত্ব সামলেছি। এবার মানুষকে সেবা করার দায়িত্বটাও সঠিকভাবে সামলাতে পারব বলে আশা রাখি। নির্বাচন বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি আমাকে এক কথায় বলেছেন: যাও, জিতে এসো। এতে আমার আরও বিশ্বাস
বেড়ে গেছে।
প্রসঙ্গত, আগামী ১১ এপ্রিল পশ্চিমবঙ্গে লোকসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ নির্বাচন সাত দফায় হবে। এবারই প্রথম সাত দফায় নির্বাচন হতে যাচ্ছে। নির্বাচনের ফল ঘোষণা হবে ২৩ মে।

সর্বশেষ..