রোহিঙ্গা নির্যাতন বন্ধে গণজাগরণ মঞ্চের ‘ঢাকা-র‍্যালি’

মিয়ানমারে রোহিঙ্গা ‘গণহত্যা’ বন্ধের দাবিতে আজ শুক্রবার ‘ঢাকা র‍্যালি’ করবে গণজাগরণ মঞ্চ। মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকার বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে এই কর্মসূচির ঘোষণা দেন।

ইমরান বলেন, “মিয়ানমারে রোহিঙ্গা জাতিগোষ্ঠীর লক্ষ লক্ষ মানুষ সেখানকার সামরিক জান্তার নির্মম গণহত্যা ও নির্যাতনের শিকার হচ্ছে, যা বিশ্ব বিবেককে স্তম্ভিত করে দেওয়ার মত একটি ঘটনা।

“প্রতিদিন বাংলাদেশ সীমান্তে আসছে নারী-শিশু নির্বিশেষে ঘরহারা লক্ষ লক্ষ মানুষের ঢল। সাগরে কচুরিপানার মত ভেসে আসছে মানব শিশুর লাশ।”

‘জাতিগত নিপীড়নের শিকার’ এই মানুষগুলোকে নিজেদের দেশে নিরাপদে বাস করার অধিকার ফিরিয়ে দিতে বাংলাদেশকে সবচেয়ে জোরালো ভূমিকা রাখতে হবে বলে মন্তব্য করেন ইমরান।

গত ২৫ অগাস্ট রাখাইনে সেনা ও পুলিশ চৌকিতে রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের হামলার পর সেনা অভিযান শুরু হলে বাংলাদেশ সীমান্তমুখে নতুন করে রোহিঙ্গা স্রোত শুরু হয়। এরই মধ্যে দেড় লক্ষাধিক রোহিঙ্গা বাংলাদেশে ঢুকে পড়েছে বলে জাতিসংঘ শরণার্থী সংস্থার হিসাব।

রোহিঙ্গাদের কীভাবে গুলি করে হত্যা করা হচ্ছে, গ্রামের পর গ্রাম জ্বালিয়ে দিয়ে তাড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে, সেই বিবরণ আসছে জীবন ভয়ে পালিয়ে আসা খাদ্যহীন-আশ্রয়হীন মানুষের কাছ থেকে।

ইমরান বলেন, “মিয়ানমারের সরকারকে এই বর্বর গণহত্যা বন্ধ করতে বাধ্য করতে হবে। প্রয়োজনে সারা পৃথিবীর মানুষের কাছে এই গণহত্যার খবর পৌঁছে দিয়ে জনমত তৈরি করতে হবে।”

শুক্রবার বিকালে গণজারণ মঞ্চের ‘ঢাকা র‍্যালি’ শাহবাগ থেকে শুরু হয়ে রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলো প্রদক্ষিণ করবে বলে জানান তিনি।

ইমরান বলেন, এই নাগরিক র‍্যালিকে কেন্দ্র করে হ্যাশট্যাগ দিয়ে ফেইসবুক, টুইটারসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে প্রচার চলছে।

দল-মত-ধর্ম নির্বিশেষে প্রতিটি মানুষকে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানিয়ে ইমরান বলেন, “আসুন সব বিভেদ ভুলে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে মানতার এই র‍্যালিতে অংশগ্রহণ করি। সারা বিশ্বকে জানিয়ে দিই, বাংলাদেশের মানুষ নিপীড়িত রোহিঙ্গাদের পাশে আছে।”