কোম্পানি সংবাদ

লভ্যাংশ পাঠিয়েছে ইস্টার্ন ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক: গত ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮ সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য ঘোষিত নগদ লভ্যাংশ পাঠিয়েছে ব্যাংক খাতের কোম্পানি ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড। রাষ্টীয় শেয়ার তথ্য সংরক্ষণকারী সংস্থা সেন্ট্রাল ডিপোজিটরি বাংলাদেশ লিমিটেড (সিডিবিএল) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
আলোচিত সময়ে কোম্পানিটি কোম্পানিটি ২০ শতাংশ নগদ ও ১০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে চার টাকা ২২ পয়সা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৩১ টাকা ৬৭ পয়সা। এদিকে গতকাল কোম্পানিটির শেয়ারদর এক দশমিক ৩৩ শতাংশ বা ৫০ পয়সা কমে প্রতিটি শেয়ার সর্বশেষ ৩৭ টাকায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দরও ছিল ৩৭ টাকা। দিনজুড়ে এক লাখ ১৯ হাজার ৬০১টি শেয়ার মোট ১৯৬ বার হাতবদল হয়, যার বাজারদর ৪৩ লাখ ৫১ হাজার টাকা। গত এক বছরে কোম্পানিটির শেয়ারদর ৩০ টাকা ৫০ পয়সা থেকে ৪৩ টাকা ৯০ পয়সার মধ্যে ওঠানামা করে।
এর আগে ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭ সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য কোম্পানিটি ২০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে, যা তার আগের বছরে ছিল ২০ শতাংশ ও পাঁচ শতাংশ বোনাস। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটি শেয়ার প্রতি আয় হয়েছিল তিন টাকা ২৯ পয়সা ও এনএভি ২৯ টাকা ৬৪ পয়সা। এটি আগের বছর একই সময় ছিল যথাক্রমে তিন টাকা ৮৬ পয়সা ও ২৯ টাকা ৬৪ পয়সা। ওই সময় কর-পরবর্তী মুনাফা করেছে ২৪২ কোটি ৮২ লাখ ৭০ হাজার টাকা, যা আগের বছর ছিল ২৭১ কোটি ৬৩ লাখ ৪০ হাজার টাকা।
ব্যাংক খাতের এ কোম্পানিটি ১৯৯৩ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়ে বর্তমানে ‘এ’ ক্যাটেগরিতে অবস্থান করছে। এক হাজার ২০০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ৮১১ কোটি ৮০ লাখ টাকা। কোম্পানির রিজার্ভের পরিমাণ এক হাজার ৫২৫ কোটি ৭৪ লাখ ৬০ হাজার টাকা। কোম্পানিটির মোট ৮১ কোটি ১৭ লাখ ৯৯ হাজার ৫৪৮টি শেয়ারের মধ্যে উদ্যোক্তা বা পরিচালকদের ৩১ দশমিক ৫৬ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীর ৪৩ দশমিক ৬৭ শতাংশ, বিদেশি বিনিয়োগকারী শূন্য দশমিক ৪১ শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীর কাছে বাকি ২৪ দশমিক ৩৬ শতাংশ শেয়ার রয়েছে। সর্বশেষ বার্ষিক প্রতিবেদন ও বাজারদরের ভিত্তিতে শেয়ারের মূল্য আয় (পিই) অনুপাত আট দশমিক ৭৭ এবং হালনাগাদ অনিরীক্ষিত ইপিএসের ভিত্তিতে সাত দশমিক ৯১।

সর্বশেষ..