সুস্বাস্থ্য

শিশুর কোন বয়সে কেমন ঘুম

মানসিক ও শারীরিকভাবে সুস্থভাবে বেড়ে ওঠার জন্য শিশুদের প্রয়োজন পর্যাপ্ত ঘুম। কিন্তু বিভিন্ন কারণে শিশুরা ঠিকভাবে ঘুমায় না বা ঘুমাতে পারে না। দেখা যায়, অনেক নবজাতক এক নাগাড়ে চাহিদার তুলনায় বেশি ঘুমোচ্ছে, আবার কেউ কম ঘুমাচ্ছে। আসলে বয়সের সঙ্গে ঘুমের সম্পর্ক রয়েছে। শিশু বেড়ে ওঠার সঙ্গে সঙ্গে ঘুমের সময়সীমায়ও পরিবর্তন হতে থাকে।
এক থেকে চার সপ্তাহ: এক থেকে চার সপ্তাহের নবজাতকদের মূলত ঘুমানোর কোনো নির্ধারিত সময় নেই। তারা দিন ও রাতে কোনো নিয়ম মেনে চলে না। তবে তাদের নির্দিষ্ট ঘুমের পরিমাণ রয়েছে। তারা একদিনে ১৫ থেকে ১৬ ঘণ্টা ঘুমায়। এমনকি ১৮ ঘণ্টা পর্যন্তও ঘুমাতে পারে। এর মধ্যে দুই থেকে চার ঘণ্টা অন্তর তারা জেগে উঠবে। সাধারণত দিনে আট ঘণ্টা ও রাতে আট ঘণ্টা ঘুমায় এ বয়সের শিশুরা।
এক থেকে চার মাস: ছয় সপ্তাহের মধ্যে অর্থাৎ এক থেকে চার মাস বয়সের শিশুর ঘুমে কিছুটা পরিবর্তন দেখা যাবে। তার ঘুম কিছুটা নিয়মের মধ্যে আসবে। এ বয়স থেকে সে তার ঘুমে একটা রুটিন অনুসরণ করতে শুরু করবে। তার একটানা ঘুমের সর্বোচ্চ সময়সীমা তখন চার থেকে পাঁচ ঘণ্টা হতে পারে। এটা অবশ্য দিনে। রাতের সময়সীমা বেশি ৯ থেকে ১০ ঘণ্টা। মোট ঘুমের সময় ১৩ থেকে ১৫ ঘণ্টা।
চার মাস থেকে ১২ মাস: এ সময়ে শিশুদের ১৪ ঘণ্টা ঘুমানোর নিয়ম থাকলেও দিনে এরা ১২ ঘণ্টা ঘুমায়। অর্থাৎ এখন থেকেই স্বাভাবিক ঘুমের অভ্যাসের চেষ্টা করছে। সে ঘুমের একটা রুটিন মেনে চলতে শিখে গেছে। ছয় মাস চলাকালে শিশু রাতে ঘুমোনোর আগে সাধারণত তিনবার ঘুমাবে। সকাল ৯টার দিক থেকে শুরু করে এক ঘণ্টা। বেলা ২টা বা তার আগে থেকে শুরু করে এক থেকে দুই ঘণ্টা ও বিকাল ৩টা থেকে ৫টার মধ্যে যে কোনো সময়ে শিশু ঘুমাতে পারে। সাধারণত ঘুমের এ কালচক্রটি সবার ক্ষেত্রে একইরকম নাও হতে পারে।
এক থেকে তিন বছর: এক বছর বয়সের শিশু ১২ থেকে ১৩ ঘণ্টা ঘুমাতে পারে। তবে এক বছর পার হয়ে গেলে দিনের বেলা শুধু একবার ঘুমাবে। যদিও এ সময় তার সব মিলিয়ে প্রায় ১৪ ঘণ্টা ঘুমানো উচিত। সে যদি সব মিলিয়ে ১০ ঘণ্টাও ঘুমায় তবুও সেটা স্বাভাবিক। ২১ থেকে ৩৬ মাস বয়স পর্যন্ত শিশু দিনে একবার এক থেকে তিন ঘণ্টার মতো লম্বা ঘুম দেবে। আর সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত ৯টার মধ্যে ঘুমিয়ে পড়বে। সকাল ৬টা থেকে ৮টার মধ্যে বিছানা ছাড়বে।
তিন থেকে ছয় বছর: এ বয়সে শিশুরা ১১ বা ১২ ঘণ্টা ঘুমায়। সাধারণত সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত ৯টার মধ্যে ঘুমিয়ে পড়ে। সকাল ৬টা থেকে ৮টার মধ্যে ঘুম থেকে উঠে। তিন বছর পর্যন্ত এ নিয়মেই ঘুমাবে। বয়স যখন পাঁচ বছরে পৌঁছাবে তখন আবার ঘুমে খানিকটা পরিবর্তন আসতে পারে। যেমন এ বয়সে কোনো শিশু দিনে ঘুমায়। আবার কোনো শিশু ঘুমায় না। বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে দিনের বেলায় ঘুমের অভ্যাসটা স্বভাবিকভাবে কমতে থাকে।
সাত থেকে ১২ বছর: এ বয়সের শিশুরা দিনে ১০ থেকে ১১ ঘণ্টা ঘুমায়। এ সময় সামাজিকতা, স্কুল, পারিবারিক ও অন্যান্য কাজের জন্য ঘুমের সময় একটু পিছিয়ে যায়। এ বয়সের শিশুদের রাত ৯টার মধ্যে ঘুমাবে।

 

সর্বশেষ..