শুল্ক ফাঁকি দিয়ে আনা বিদেশি কাপড় জব্দে ফের অভিযান চট্টগ্রামে

 

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম মহানগরের কোতোয়ালি থানার টেরিবাজারে শুল্ক ফাঁকি দিয়ে আনা বিদেশি শাড়ি-কাপড়ের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়েছে কোস্টগার্ড। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে ‘মনে রেখ’সহ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানে এ অভিযান চালানো হয়। এ সময় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের মালিক ও শ্রমিকরা সড়ক অবরোধ করলে অভিযান স্থগিত করা হয়।
এ ব্যাপারে শুল্ক গোয়েন্দারা জানান, ঈদ উপলক্ষে এ বছর কয়েক হাজার কোটি টাকার কাপড় আমদানি হয়েছে। এর বেশিরভাগই ভারত থেকে এসেছে, কিন্তু এসব পণ্য বৈধ পথে আসেনি। শুল্ক ফাঁকি দিয়ে বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে অবাধে ঢুকছে ভারতীয় পণ্য। আর এসবের মূল্য পরিশোধ করা হচ্ছে হুন্ডিতে। এভাবে কয়েক হাজার কোটি টাকার বৈদেশিক মুদ্রা দেশ থেকে পাচার হয়ে যাচ্ছে।
এ বিষয়ে কোস্টগার্ডের লে. কমান্ডার সাইফুল ইসলাম জানান, টেরিবাজারে শুল্ক ফাঁকি দিয়ে আনা বিদেশি শাড়ি-কাপড়ের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হয়েছে। অভিযানকালে ব্যবসায়ীরা সহযোগিতা করেননি। অভিযোগ রয়েছে, অবৈধ পথে শুল্ক না দিয়ে আসছে শত শত কোটি টাকার কাপড়। এ মার্কেটেও বিক্রি হচ্ছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে এ অভিযান চালানো হয়।
টেরিবাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আহমেদ হোসাইন বলেন, পুরো টেরিবাজার ঘিরে অভিযানের নামে ঈদের বেচাকেনায় বিঘœ সৃষ্টি করার প্রতিবাদে ব্যবসায়ী ও কর্মচারীরা বিক্ষোভ করেছেন। বৈধ কাগজপত্র দেখানোর পরও অনেক দামি দামি শাড়ি-কাপড় জব্দ করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, গত শুক্রবার চট্টগ্রাম মহানগরের কোতোয়ালি থানাধীন রহমতগঞ্জের দেওয়ানজী পুকুর পাড়ের ‘অর্ণব’ নামের একটি দোকান থেকে দেড় কোটি টাকার বিদেশি কাপড় জব্দ করেছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতর।