শেষার্ধে শেয়ার কেনার চাপে ডিএসইএক্স সূচক ঊর্ধ্বমুখী

নিজস্ব প্রতিবেদক: পুঁজিবাজারে গতকাল লেনদেনের প্রথমার্ধে বিক্রির চাপ থাকলেও শেষার্ধে হঠাৎ শেয়ার কেনার চাপ বেড়ে যায়। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেনের শুরুতে সূচক সামান্য বেড়ে এরপর বিক্রির চাপ বাড়লে সূচক নেমে যায়। দুপুর ১২টার পর থেকে শেয়ার কেনার চাপ বাড়তে থাকলে দেড়টার দিকে আগের দিনের থেকে ৪৭ পয়েন্ট বেড়ে যায় সূচক। এরপর আবার নামতে থাকে। শেষ পর্যন্ত ২৪ পয়েন্ট ইতিবাচক থেকে লেনদেন শেষ হয়। ডিএসই ৩০ সূচকও ইতিবাচক ছিল তবে ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক নেতিবাচক অবস্থানে ছিল। লেনদেন আগের দিনের তুলনায় সামান্য বেড়েছে। অপরদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সিএসআই সূচক ছাড়া বাকি সবগুলো সূচক ইতিবাচক হলেও লেনদেন আগের কার্যদিবসের তুলনায় কমেছে।
বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, গতকাল ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২৪ দশমিক শূন্য ছয় পয়েন্ট বা দশমিক ৪৪ শতাংশ বেড়ে পাঁচ হাজার ৪০৫ দশমিক ৯৫ পয়েন্টে অবস্থান করে।
ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক চার পয়েন্ট বা দশমিক ৩১ শতাংশ কমে এক হাজার ২৫১ দশমিক ৭৩ পয়েন্টে অবস্থান করে। আরডিএস ৩০ সূচক তিন দশমিক ৪৫ পয়েন্ট বা দশমিক ১৮ শতাংশ বেড়ে এক হাজার ৯০৫ দশমিক ২৯ পয়েন্টে অবস্থান করে। গতকাল ডিএসইর বাজার মূলধন কমে তিন লাখ ৮৫ হাজার ৮৪১ কোটি টাকা হয়। ডিএসইতে গতকাল লেনদেন হয় ৭২৪ কোটি ৪৪ লাখ ২৭ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৭১০ কোটি ৫২ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসেবে লেনদেন বেড়েছে ১৩ কোটি ৯১ লাখ টাকা। এদিন ১৯ কোটি ১৩ লাখ ৮০ হাজার ৩৭৬টি শেয়ার এক লাখ ৫৩ হাজার ৮৯০ বার হাতবদল হয়। লেনদেন হওয়া ৩৩৮টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৪১টির, কমেছে ১৬৩টির, অপরিবর্তিত ছিল ৩৪টির দর।
গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে আমান কটন ফাইব্রাস। গতকাল আট টাকা ৩০ পয়সা কমে শেয়ারটির দর সংশোধন হয়। ৩৫ কোটি ২৫ লাখ টাকায় কোম্পানিটির ৪৪ লাখ ১৭ হাজার ১৭৭টি শেয়ার লেনদেন হয়। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা বিবিএস কেব্লসের ৩৪ কোটি ২৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। এরপরের অবস্থানগুলোতে ছিল লিগ্যাসি ফুটওয়্যার, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, দ্য পেনিনসুলা, মুন্নু সিরামিক, ইউনাইটেড পাওয়ার, সিমটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ, ব্র্যাক ব্যাংক ও সায়হাম টেক্সটাইল। সর্বোচ্চসংখ্যক শেয়ার লেনদেনের শীর্ষ উঠে আসে প্রাইম ব্যাংক। কোম্পানিটির ৫৪ লাখ ৬২ হাজার ৫৪০টি শেয়ার আট কোটি ৮৮ লাখ টাকায় লেনদেন হয়। এরপরের অবস্থানে ছিল দ্য পেনিনসুলা, আমান কটন ফাইব্রাস, আলিফ ম্যানুফ্যাকচারিং, নূরানী ডায়িং, ফু ওয়াং ফুড, মার্কেন্টাইল ব্যাংক, সায়হাম টেক্সটাইল, প্রিমিয়ার ব্যাংক ও ঢাকা ব্যাংক। ৯ দশমিক ৯৫ শতাংশ বেড়ে দর বৃদ্ধির শীর্ষে উঠে আসে ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্স। এরপরে পদ্মা লাইফ ৯ দশমিক ৭৩ শতাংশ, লিগ্যাসি ফুটওয়্যারের দর আট দশমিক ৭৩ শতাংশ, ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্সের দর আট দশমিক ৫২ শতাংশ, ট্রাস্ট ব্যাংকের দর ছয় দশমিক ৮৯ শতাংশ বেড়েছে। এছাড়া ওয়াটা কেমিক্যাল, এনসিসিবিএল মিউচুয়াল ফান্ড-১, প্রাইম ব্যাংক, সিনোবাংলা ইন্ডাস্ট্রিজ, মুন্নু জুট স্টাফলার দর বৃদ্ধির শীর্ষে উঠে আসে।
অন্যদিকে ৯ দশমিক ৮৭ শতাংশ কমে শ্যামপুর সুগার মিল দরপতনের শীর্ষে উঠে আসে। আমান কটন ফাইব্রাসের দর ৯ দশমিক ৭৫ শতাংশ কমেছে, ইমাম বাটনের দর কমে আট দশমিক ৭৭ শতাংশ, সাভার রিফ্রাক্টরিজের দর আট দশমিক ৪১ শতাংশ এবং এইচআর টেক্সটাইলের দর আট দশমিক ১৮ শতাংশ কমেছে।
চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) গতকাল সিএসসিএক্স মূল্যসূচক ৩৯ দশমিক ৬৩ পয়েন্ট বেড়ে ১০ হাজার ৫৩ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৬৩ দশমিক ৬৬ পয়েন্ট বেড়ে ১৬ হাজার ৬০৭ পয়েন্টে অবস্থান করে। তবে সিএসআই সূচক দুই দশমিক ৩৯ পয়েন্ট কমেছে। গতকাল সর্বোমোট ২৪৪টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৯০টির। কমেছে ১২৮টির। অপরিবর্তিত ছিল ২৬টির দর।
সিএসইতে এদিন ২৬ কোটি ১৮ লাখ ৩৩ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয় ৩৩ কোটি ৩৯ লাখ ৪১ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে লেনদেন কমেছে সাত কোটি ২১ লাখ টাকা। সিএসইতে গতকাল লেনদেনের শীর্ষে অবস্থান করে আমান কটন ফাইব্রাস। কোম্পানিটির চার কোটি ৭৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। এরপরে বিবিএস কেব্লসের ৮৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। এছাড়া রূপালী ব্যাংকের ৬৯ লাখ, দেশবন্ধু পলিমার ৬৪ লাখ, ওয়েমেক্স ৫৯ লাখ, ফরচুন সুজ ৪৮ লাখ, আনোয়ার গ্যালভানাইজিং ৪৬ লাখ, বিএসআরএম স্টিল ৪২ লাখ, বসুন্ধরা পেপার মিল ৪১ লাখ ও দ্য পেনিনসুলার ৪১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।