প্রচ্ছদ প্রথম পাতা বাজার বিশ্লেষণ

সপ্তাহ শেষে মুনাফা তোলার প্রবণতা

রুবাইয়াত রিক্তা: পুঁজিবাজারে গতকাল সপ্তাহের শেষদিনে ছিল মুনাফা তোলার প্রবণতা। বিক্রির চাপ বেশি থাকার কারণে বেশিরভাগ খাতেই অধিকাংশ কোম্পানি দরপতনে ছিল। তবে কেনার চাপও ছিল বেশ কয়েকটি খাতে। এর মধ্যে টেলিযোগাযোগ, তথ্য ও প্রযুক্তি, বিমা, ওষুধ ও রসায়ন এবং পাট খাতে ছিল কেনার চাপ। এসব খাতে অধিকাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। তবে খাদ্য ও আনুষঙ্গিক এবং বস্ত্র খাত তুলনামূলকভাবে ভালো অবস্থানে ছিল।
গতকাল সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয় বস্ত্র খাতে। এ খাতে লেনদেন হয় ১৪২ কোটি টাকা, যা মোট লেনদেনের ১৬ শতাংশ। এ খাতে ৫৬ শতাংশ শেয়ারদর বেড়েছে। ছয় শতাংশের বেশি দর বেড়ে শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজ ও আলহাজ টেক্সটাইল দরবৃদ্ধির শীর্ষ দশের মধ্যে উঠে আসে। এর মধ্যে শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজের প্রায় সাড়ে ১৮ কোটি টাকার ও প্যারামাউন্ট টেক্সের ১৬ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। প্রকৌশল খাতে লেনদেন হয় ১৪ শতাংশ। এ খাতে বিক্রির চাপ থাকায় ৩৮ শতাংশ শেয়ারদর বেড়েছে। নাহি অ্যালুমিনিয়াম ক্যাপিটাল দরবৃদ্ধির শীর্ষ দশে উঠে আসে। বিবিএস কেব্লসের সাড়ে ২৬ কোটি টাকা, নাহি অ্যালুমিনিয়ামের সাড়ে ১৪ কোটি ও সিঙ্গার বিডির সাড়ে ১৩ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। ওষুধ ও রসায়ন খাতে লেনদেন হয় ১২ শতাংশ। এ খাতে ৬৮ শতাংশ শেয়ারদর বেড়েছে। জেএমআই সিরিঞ্জ কোম্পানির প্রায় ২৭ কোটি টাকা লেনদেনের পাশাপাশি দর বেড়েছে ১৭ টাকা ৭০ পয়সা। অ্যাকটিভ ফাইনের প্রায় ১৮ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। তবে দর অপরিবর্তিত ছিল। ব্যাংক খাতে লেনদেন হয় ১০ শতাংশ। এ খাতে মুনাফা তুলে নেওয়ার প্রবণতায় ৮০ শতাংশ কোম্পানির দরপতন হয়। ব্র্যাক ব্যাংকের সাড়ে ১৪ কোটি টাকা লেনদেনের পাশাপাশি দর বেড়েছে এক টাকা ৪০ পয়সা। জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাতে লেনদেন হয় ৯ শতাংশ। এ খাতে ৫৮ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। শাহজিবাজার পাওয়ার কোম্পানির সাড়ে ১৪ কোটি টাকা লেনদেনের পাশাপাশি দর বেড়েছে পাঁচ টাকা ১০ পয়সা। এছাড়া বিমা খাতে ৮০ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। প্রাইম লাইফ ইন্স্যুরেন্স, প্যারামাউন্ট ইন্স্যুরেন্স, ঢাকা ইন্স্যুরেন্স, অগ্রণী ইন্স্যুরেন্স ও ফেডারেল ইন্স্যুরেন্স দরবৃদ্ধির শীর্ষ দশে উঠে আসে। তথ্য ও প্রযুক্তি খাতের একটি কোম্পানিও দরপতনে ছিল না। টেলিযোগাযোগ ও পাট খাতে শতভাগ কোম্পানির দর বেড়েছে। এর মধ্যে গ্রামীণফোনের দর বেড়েছে সাত টাকা। আর্থিক খাতে ৭৪ শতাংশ কোম্পানি দরপতনে ছিল। খাদ্য খাতে ৫৩ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজের ১৯ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হলেও দরপতনে ছিল কোম্পানিটি। বিক্রির চাপ সত্ত্বেও গতকাল এক পর্যায়ে সাভার রিফ্রাক্টরিজ, প্রাইম ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স ও ইনফরমেশন সার্ভিসেস নেটওয়ার্ক কোম্পানির শেয়ারে বিক্রেতা পাওয়া যায়নি।

সর্বশেষ..