সাত শতাংশ সুদে ঋণ দেবে ২৪ ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান

নিজস্ব প্রতিবেদক: বেসরকারি খাতে বিনিয়োগ বৃদ্ধির জন্য জাপান সরকারের অর্থায়নে সাত শতাংশ সুদে ঋণ বিতরণ করবে ২৪ ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান। গতকাল বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংকের সম্মেলন কক্ষে বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রা বিনিয়োগ বিভাগের মহাব্যবস্থাপকের সঙ্গে ২৪ প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তি স্বাক্ষর করেন।

চুক্তি অনুযায়ী ব্যাংকগুলো তিন শতাংশ সুদে ঋণ নিয়ে গ্রাহক পর্যায়ে সর্বোচ্চ সাত শতাংশ সুদে বিনিয়োগ করতে পারবে।

বাংলাদেশ সরকার ও জাইকার ‘ফরেন পাইরেক্ট ইনভেস্ট প্রমোশন প্রজেক্ট (বিডি-পি৮৬)’ চুক্তির আওতায় সাত হাজার ১০৯ জাপানি ইয়েন বা ৪৬১ কোটি ৬২ লাখ টাকা বাংলাদেশকে দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের মাধ্যমে বিভিন্ন ব্যাংক গ্রাহকদের মধ্যে এ ঋণ বিতরণ করবে। দেশের অর্থনৈতিক অঞ্চল, শিল্পপার্ক প্রতিষ্ঠাতারা এ ঋণ নেওয়ার জন্য অগ্রাধিকার পাবেন। পাঁচ থেকে ১০ বছর মেয়াদি এ ঋণের গ্রেস পিরিয়ড দুই বছর।

বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রা বিনিয়োগ বিভাগের মহাব্যবস্থাপক মো. রেজাউল ইসলাম জানান, প্রকল্প থেকে পিএফআইগুলোকে বাংলাদেশ ব্যাংক তিন শতাংশ হারে তহবিল সরবরাহ করবে এবং পিএফআইগুলো জাপানি প্রতিষ্ঠান, জাপানি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে অংশীদারিত্বের মাধ্যমে পরিচালিত বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠান এবং জাপানের সঙ্গে উল্লেখযোগ্য মাত্রায় ব্যবসায়িক লেনদেন পরিচালনাকারী বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠানকে সর্বোচ্চ সাত শতাংশ হারে সর্বোচ্চ ১০ বছরের জন্য একক প্রতিষ্ঠানকে ৩০ কোটি টাকা পর্যন্ত অর্থায়ন প্রদান করবে। তবে প্রয়োজনে স্টিয়ারিং কমিটির অনুমোদন সাপেক্ষে এ অর্থের পরিমাণ বাড়তে পারে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির। এ সময় তিনি বিদেশি বিনিয়োগে অংশীদার হওয়ায় জাপান সরকারকে ধন্যবাদ জানান। এই বিনিয়োগে বহু মানুষের কর্মসংস্থান হবে বলে জানিয়ে গভর্নর বলেন, সরকার দেশে বিদেশি বিনিয়োগ বৃদ্ধির জন্য কাজ করে যাচ্ছে।

জাইকার বাংলাদেশ অফিসের চিফ রিপ্রেজেন্টেটিভ তাকাতোশি নিশিকাতা, বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আবু হেনা মোহাম্মদ রাজী হাসান, এবিবি’র চেয়ারম্যান সৈয়দ মাহবুবুর রহমান, নির্বাহী পরিচালক আহমেদ জামাল ও বৈদেশিক মুদ্রা বিনিয়োগ বিভাগের মহাব্যবস্থাপক মো. রেজাউল ইসলাম বক্তব্য রাখেন।