সুশিক্ষা

সাদার্ন ইউনিভার্সিটিতে নতুন শিক্ষকদের বরণ অনুষ্ঠান

সাদার্ন ইউনিভার্সিটিতে বিভিন্ন বিভাগে নিয়োগপ্রাপ্ত নবীন শিক্ষকদের বরণ করে নেওয়া হয়েছে। গত ২৮ এপ্রিল ইউনিভার্সিটির স্থায়ী ক্যাম্পাস বায়েজিদ আরেফিন নগরে অয়োজিত হয়েছে অনুষ্ঠানটি। এতে উপস্থিত ছিলেন ইউনিভার্সিটির উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠাতা প্রফেসর সরওয়ার জাহান, উপ-উপাচার্য প্রফেসর ইঞ্জিনিয়ার এম আলী আশরাফ, প্রফেসর এজেএম নুরুদ্দীন চৌধুরী, ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের প্রধান প্রফেসর ড. ইসরাত জাহান, রেজিস্ট্রার ড. মোজাম্মেল হক, বিভিন্ন বিভাগের প্রধান ও শিক্ষকরা। এই অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বিভিন্ন বিভাগের ২৬ শিক্ষককে ইউনিভার্সিটি কর্তৃপক্ষ আনুষ্ঠানিকভাবে বরণ করে নিয়েছে।
প্রফেসর সরওয়ার জাহান নবীন শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে বলেন, একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে এগিয়ে নিতে পারে শিক্ষকরাই। তাদের মেধা ও দক্ষতায় তৈরি হবে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান। একজন ভালো শিক্ষক বদলে দিতে পারে পুরো সমাজ ব্যবস্থার চিত্র। গতানুগতিক শিক্ষা নয়, বরং গবেষণা ও সময়োপযোগী শিক্ষার ওপর বেশি গুরুত্ব দিতে হবে। শিক্ষার্থীরা বেশি অনুসরণ করে শিক্ষকদের আদর্শ। তাই শিক্ষকদের এমনভাবে নিজেকে উপস্থাপন করতে হবে, যাতে উন্নত জীবন গঠনে শিক্ষার্থীরা উদ্বুদ্ধ হয়। দেশকে একটি সুশিক্ষিত ও দক্ষ মানবসম্পদ উপহার দিতে পারাটাই শিক্ষকদের সেরা অর্জন। প্রতিষ্ঠানকে ভালোবেসে মেধা ও যোগ্যতা দিয়ে এগিয়ে নেবে তারা, এটাই প্রত্যাশা করছি। এ সময় তিনি সাদার্ন পলিসি সম্পর্কে নবীন শিক্ষকদের ধারণা দেন।
অনুষ্ঠানে নবীন শিক্ষকদের অনুপ্রাণিত করতে ‘হাউ টু বিকাম এ গুড টিচার অ্যাট হাইয়ার এডুকেশন উইথ প্রফেশনাল ইন্টিগ্রিটি’ বিষয়ে বক্তব্য উপস্থাপন করেন উপ-উপাচার্য প্রফেসর ইঞ্জিনিয়ার এম আলী আশরাফ ও ‘হাউ টু বিকাম এ গুড রিসার্চার’-এর ওপর বক্তব্য দেন প্রফেসর এজেএম নুরুদ্দীন চৌধুরী। সাদার্ন ইউনিভার্সিটি সম্পর্কে নবীন শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন প্রফেসর ড. ইসরাত জাহান। সমাপনী বক্তব্যে সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন রেজিস্ট্রার ড. মোজাম্মেল হক। অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন সহকারী রেজিস্ট্রার ড. সফিউল্লাহ মীর।

সর্বশেষ..