সায়হাম টেক্স ও ওইম্যাক্সের ঋণমান নির্ণয়

নিজস্ব প্রতিবেদক: সায়হাম টেক্সটাইল মিলস লিমিটেড ও ওইম্যাক্স ইলেকট্রোডস লিমিটেডের ঋণমান অবস্থান (ক্রেডিট রেটিং) নির্ণয় করেছে ন্যাশনাল ক্রেডিট রেটিংস লিমিটেড (এনসিআর)। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সায়হাম টেক্সটাইল: কোম্পানিটি দীর্ঘমেয়াদে রেটিং পেয়েছে ‘এএ-’ এবং স্বল্প মেয়াদে ‘এসটি-২’। ৩০ জুন ২০১৭ পর্যন্ত নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনের আলোকে এ রেটিং সম্পন্ন হয়েছে।

গতকাল শেয়ারদর পাঁচ দশমিক ৩৮ শতাংশ বা এক টাকা বেড়ে প্রতিটি সর্বশেষ ১৯ টাকা ৬০ পয়সায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দর ছিল ১৯ টাকা ৮০ পয়সা। দিনজুড়ে আট লাখ দুই হাজার ৮৬১টি শেয়ার মোট ২৪৭ বার হাতবদল হয়, যার বাজারদর এক কোটি ৫৬ লাখ ৬৪ হাজার টাকা। দিনভর শেয়ারদর সর্বনি¤œ ১৮ টাকা ৬০ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ ২০ টাকা ১০ পয়সায় হাতবদল হয়। গত এক বছরে শেয়ারদর ১৭ টাকা ৫০ পয়সা থেকে ২৪ টাকায় ওঠানামা করে।

২০১৭ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে কোম্পানিটি ১২ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) করেছে এক টাকা দুই পয়সা ও শেয়ারপ্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) ২৬ টাকা ৯৪ পয়সা। ওই সময় কর-পরবর্তী মুনাফা করেছে ৯ কোটি ২৩ লাখ ৮০ হাজার টাকা।

‘এ’ ক্যাটেগরির কোম্পানিটি ১৯৮৮ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। ১৫০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ৯০ কোটি ৫৬ লাখ ৩০ হাজার টাকা। রিজার্ভের পরিমাণ ৮০ কোটি ৬৪ লাখ টাকা।

ওইম্যাক্স: কোম্পানিটি দীর্ঘ মেয়াদে রেটিং পেয়েছে ‘বিবিবি’ এবং স্বল্প মেয়াদে ‘এসটি-৩’। ৩০ জুন ২০১৭ পর্যন্ত নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনের আলোকে এ রেটিং সম্পন্ন হয়েছে।

গতকাল কোম্পানিটির তিন লাখ ৪৬ হাজার ৪২১টি শেয়ার মোট ৭৬৩ বার লেনদেন হয়। এর বাজারদর ছিল এক কোটি ৫৪ লাখ ৯২ হাজার টাকা। শেয়ারদর আগের কার্যদিবসের চেয়ে এক দশমিক ৩৭ শতাংশ বা ৬০ পয়সা বেড়ে প্রতিটি শেয়ার সর্বশেষ ৪৪ টাকা ৫০ পয়সায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দর ছিল ৪৪ টাকা ৪০ পয়সা। দিনভর শেয়ারদর সর্বনি¤œ ৪৪ টাকা ২০ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ ৪৫ টাকা ৪০ পয়সায় হাতবদল হয়। গত এক বছরে কোম্পানিটির শেয়ারদর ৪২ টাকা ৭০ পয়সা থেকে ১২০ টাকার মধ্যে ওঠানামা করে।

২০১৭ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে কোম্পানিটি ১০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ দিয়েছে। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটি ইপিএস করেছে দুই টাকা ৯ পয়সা ও এনএভি ১৬ টাকা ৯৬ পয়সা। ওই সময় কর-পরবর্তী মুনাফা করেছে ছয় কোটি ৪৫ লাখ ৮০ হাজার টাকা।

১০০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ৫০ কোটি ৪৮ লাখ ১০ হাজার টাকা। রিজার্ভের পরিমাণ এক কোটি ৯০ লাখ টাকা। কোম্পানিটির মোট পাঁচ কোটি চার লাখ ৮১ হাজার ২০০টি শেয়ার রয়েছে।