হুয়াওয়ের ফাইভজিতে নিষেধাজ্ঞা নেই ইতালির

বিশ্বের অন্যতম আইসিটি কোম্পানি হুয়াওয়ের ফাইভজি প্রযুক্তি স্থাপনে নিষেধাজ্ঞা নেই ইতালির। দেশটির সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, হুয়াওয়ের ফাইভজি প্রযুক্তি ব্যবহারে তাদের কোনো আপত্তি নেই। রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানা গেছে।
ইতালির অর্থনৈতিক উন্নয়ন মন্ত্রণালয় (এমআইএসই) জানিয়েছে, দেশটির ফাইভজি প্রযুক্তি স্থাপনে হুয়াওয়ে ও জেডটিই’র অংশ নেওয়ার বিষয়ে কোনো নিষেধাজ্ঞার কথা তারা ভাবছে না। এ প্রতিষ্ঠানগুলোর বিরুদ্ধে জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়ায় এমন কোনো প্রমাণ নেই।
এক বিবৃতিতে এমআইএসই ইতালীয় সংবাদপত্র ‘লা স্ট্যাম্পা’র একটি প্রতিবেদনের উদ্ধৃতি দিয়ে বলা হয়েছে, সরকার তাদের ‘গোল্ডেন পাওয়ার’ আইন ব্যবহার করে প্রতিষ্ঠানগুলোর ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করার জন্য প্রস্তুত ছিল। পত্রিকাটি আরও জানিয়েছে, এ প্রতিষ্ঠানগুলো চীনের পক্ষে গুপ্তচরবৃত্তি করছেÑযুক্তরাষ্ট্রের এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ইতালি তাদের নিষিদ্ধ করে। তবে ইতালির অর্থনৈতিক উন্নয়ন মন্ত্রণালয় বিবৃতিতে বিষয়টি অস্বীকার করে। কারণ হুয়াওয়ের বিরুদ্ধে তথ্য পাচারের কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি।
এমআইএসই জানায়, ফাইভজি প্রযুক্তি স্থাপনের ক্ষেত্রে ইতালি থেকে হুয়াওয়ে ও জেডটিই’র ওপর নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি সত্য নয়। অর্থনৈতিক উন্নয়ন মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে কোনো উদ্যোগ নেওয়ার ইঙ্গিত দেয়নি। মন্ত্রণালয় আরও জানিয়েছে, জাতীয় নিরাপত্তায় তাদের বিশেষ অগ্রাাধিকার রয়েছে এবং এ ক্ষেত্রে কোনো সমস্যা উদ্ভূত হলে অবশ্যই প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।
হুয়াওয়ে
হুয়াওয়ে বিশ্বের অন্যতম তথপ্রযুক্তি সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান। সমৃদ্ধ জীবন নিশ্চিতকরণ ও উদ্ভাবনী দক্ষতা বৃদ্ধির মাধ্যমে একটি উন্নত ও সংযুক্ত পৃথিবী গড়ে তোলাই এর উদ্দেশ্য। হুয়াওয়ে একটি পরিপূর্ণ আইসিটি সমাধান পোর্টফোলিও প্রতিষ্ঠা করেছে, যা গ্রাহকদের টেলিকম ও এন্টারপ্রাইজ নেটওয়ার্ক, ডিভাইস ও ক্লাউড কম্পিউটিংয়ের সুবিধা দেয়। প্রতিষ্ঠানটি বিশ্বের
১৭০টির বেশি দেশ ও অঞ্চলে সেবা দিচ্ছে, যা বিশ্বের এক-তৃতীয়াংশ জনসংখ্যার সমান। এক লাখ ৮০ হাজার কর্মী নিয়ে ভবিষ্যতের তথ্য প্রযুক্তিভিত্তিক সমাজ তৈরির লক্ষ্যে হুয়াওয়ে কাজ করে চলেছে।