বিশ্ব প্রযুক্তি

হুয়াওয়ের বিধিনিষেধ ৯০ দিনের জন্য শিথিল

শেয়ার বিজ ডেস্ক: চীনের টেলিকম জায়ান্ট হুয়াওয়ের ওপর আরোপিত কিছু বিধিনিষেধ সাময়িক শিথিল করেছে যুক্তরাষ্ট্র। গত সপ্তাহে হুয়াওয়ের ওপর আরোপিত ওই বাণিজ্য নিষেধাজ্ঞার কিছু অংশ গত সোমবার শিথিলের কথা বলা হয়েছে। বিশ্বজুড়ে হুয়াওয়ের গ্রাহকের কথা বিবেচনা করে এ শিথিলতা দেওয়া হচ্ছে। খবর: সিএনবিসি।
যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য বিভাগ থেকে হুয়াওয়ে টেকনোলজিসকে বর্তমান হুয়াওয়ে হ্যান্ডসেটগুলোর জন্য বিদ্যমান নেটওয়ার্ক ও সফটওয়্যার আপডেটের সুবিধার্থে মার্কিন প্রতিষ্ঠানের তৈরি পণ্য কেনার সুযোগ দেবে। তবে নতুন স্মার্টফোন তৈরিতে লাইসেন্স অনুমোদন না হওয়া পর্যন্ত মার্কিন প্রতিষ্ঠানের তৈরি যন্ত্রাংশ কেনার অনুমতি দেবে না।
যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্যমন্ত্রী উইলবার রস এক বিবৃতিতে বলেন, হুয়াওয়ের ওপর নির্ভরশীল প্রতিষ্ঠানগুলোকে বিকল্প ব্যবস্থা করতে সময় দেওয়ার জন্য নতুন এ অনুমোদন দেওয়া হলো।
নতুন এ অনুমোদন প্রক্রিয়া তিন মাসের জন্য শিথিল থাকবে। এর অর্থ, হুয়াওয়ের সাপ্লাই চেনকে তাদের গ্রাহক নিয়ে দ্রুত ও সুদূরপ্রসারী অনাকাক্সিক্ষত প্রভাবের জন্য অপেক্ষা করতে হবে। ওয়াশিংটনভিত্তিক আইনজীবী ও বাণিজ্য বিভাগের সাবেক সাবেক কেভিন ওলফ বলেন, ‘এর লক্ষ্য হচ্ছে ইন্টারনেট, কম্পিউটার সিস্টেম ও মোবাইল ফোনকে সম্ভাব্য নষ্টের হাত থেকে রক্ষা করা। এটা আত্মসমর্পণ নয়। এটি ঘর গোছানো।’
গত বুধবার ট্রাম্প প্রশাসন আনুষ্ঠানিকভাবে হুয়াওয়েকে যুক্তরাষ্ট্রে ‘কালো তালিকাভুক্ত’ করে। এতে সরকারি অনুমোদন ছাড়া মার্কিন সংস্থা থেকে হুয়াওয়ের জন্য প্রযুক্তিসেবা নেওয়ার পথ বন্ধ করা হয়। হুয়াওয়ের ওপর নিষেধাজ্ঞায় যুক্তরাষ্ট্রের অনেক প্রতিষ্ঠান চীনের এ বড় প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে ব্যবসায়িক সম্পর্ক ছিন্ন করছে।
সম্প্রতি হুয়াওয়েকে যুক্তরাষ্ট্র এমন কোম্পানিতে তালিকাভুক্ত করেছে, যার সঙ্গে বাণিজ্য করতে হলে মার্কিন কোম্পানিগুলোকে লাইসেন্স নিতে হবে। এরপরই গুগল এ সিদ্ধান্তের কথা জানাল। এক বিবৃতিতে গুগল জানায়, তারা আদেশ মেনেই কাজ করছে এবং এর প্রভাব পর্যালোচনা করছে। গুগলের নতুন এ সিদ্ধান্তের কারণে হুয়াওয়ে গুগলের নিরাপত্তাবিষয়ক আপডেট ও প্রযুক্তিগত সহায়তা আর পাবে না। তবে ‘ওপেন সোর্স প্ল্যাটফর্ম’-এ থাকা সফটওয়্যারগুলোই শুধু সচল থাকবে হুয়াওয়ের স্মার্টফোনগুলোয়। ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গুগলের সঙ্গে যুক্ত এক ব্যক্তি বলেছেন, হুয়াওয়েকে এনড্রয়েডের অ্যাকসেস বন্ধ করার সিদ্ধান্ত থেকে আপাতত সরে আসবে গুগল।
এদিকে তিন মাস পর নিষেধাজ্ঞা শিথিলের মেয়াদ বাড়ানোর হবে কি না, তা বিবেচনা করবে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। গত বুধবার ট্রাম্প প্রশাসন আনুষ্ঠানিকভাবে হুয়াওয়েকে যুক্তরাষ্ট্রে ‘কালো তালিকা’ ভুক্ত করে। এর ফলে সরকারি অনুমোদন ছাড়া মার্কিন সংস্থা থেকে প্রযুক্তিসেবা নেওয়ার পথ বন্ধ করা হয় হুয়াওয়ের জন্য।
আসলে চীনা বাণিজ্য নিয়ে দ্বন্দ্বে বরাবরই হুয়াওয়েকে জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি বলে আসছেন ট্রাম্প। গত বছর থেকে হুয়াওয়ের বিরুদ্ধে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগ আনে যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাষ্ট্রে ফাইভজি সেবার কাজে হুয়াওয়েকে ‘নিষিদ্ধ’ও ঘোষণা করা হয়। এতে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ে টেলিকম নেটওয়ার্কে হুয়াওয়ের যন্ত্রপাতি ব্যবহার করা দেশগুলো।

সর্বশেষ..