হেলমেটে আসছে পোর্টেবল এয়ারকুলার

শিরোনাম পড়েই বুঝে গেছেন, এখন রাস্তায় মোটরসাইকেল চালানোর সময় মাথা থাকবে ঠাণ্ডা। কাজেই হর্নও বাজাবেন না। তবে একটু অপেক্ষা করতে হবে। কেননা, পরীক্ষামূলকভাবে এই কুলার হেলমেট তৈরি করেছেন ভারতের ব্যাঙ্গালুরুর একজন প্রযুক্তিবিদ। তিনি জানিয়েছেন, আমজনতার হাতে পৌঁছাতে কিছুটা সময় লাগবে।
বাইক আরোহীদের কথা ভেবেই এ বিশেষ এয়ারকুলারটি বানানো হয়েছে। গরমকালে রাস্তায় বাইক নিয়ে বেরোলে মাথায় পরা যাবে কুলার লাগানো এই হেলমেটটি। শুধু অন করে দিন কুলারের সুইচ। বাইরে তাপ যতই থাকুক, মাথা থাকবে ঠাণ্ডা!
এই বহনযোগ্য এয়ারকুলার প্রাথমিকভাবে ব্যবহৃত হচ্ছে ব্যাঙ্গালুরুতে। ‘ব্লুস্ন্যাপ’ নামের ওয়াটারবেজড কুলারটি তৈরি করেছেন অ্যাপ্টএন্টার টেকনোলজিসের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সুন্দরারাজন কৃষ্ণাণ। তিনি বলেন, বাইরের তাপমাত্রা থেকে অন্তত ছয় থেকে ১৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমাতে পারবে তার হেলমেটটি। ডাস্ট-ফ্রি ও ডি-ফগিং ফিচার প্রযুক্তিতে তৈরি এ কুলারটি একবার পুরো চার্জ দিলে টানা ১০ ঘণ্টা ব্যবহার করা যাবে।
‘ব্লুস্ন্যাপ’ তুলনামূলক হালকা। এটিতে যে রিপ্লেসেবল ফিল্টার রয়েছে, সেটি সাধারণ কলের পানিই পরিষ্কার করে নেওয়া যাবে। তবে সুন্দরারাজন এই কুলারটিকে প্রযুক্তিগতভাবে আরও উন্নত করতে চান। তাই আমজনতার হাতে ‘ব্লুস্ন্যাপ’ পৌঁছাতে আরও বেশ খানিকটা সময় লাগবে।

ব্ল–আরমরহেলমেটস অবলম্বনে রাহুল সরকার