দিনের খবর সারা বাংলা

১০ নারী মুক্তিযোদ্ধাকে ‘উই’ র ঈদ শুভেচ্ছা

একাত্তরে মহান মুক্তিযুদ্ধে অবদান রাখা ১০ নারী মুক্তিযোদ্ধাকে ঈদ শুভেচ্ছা হিসেবে শাড়ি ও নগদ টাকা দিলো ‘উই’ (উই আর দ্য আর্থ-আমরাই পৃথিবী)।

রবিবার (২ জুন) দুপুরে রাজধানীর কবিতা ক্যাফেতে আয়োজন করা হয় এই অনুষ্ঠান।

নারী মুক্তিযোদ্ধাদের হাতে শাড়ি ও নগদ টাকা তুলে দেন কবি ও সংসদ সদস্য কাজী রোজী, নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের সভাপতি নাসিমুন আরা মিনু, অভিনেত্রী ও মহিলা আওয়ামী লীগের সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক রোকেয়া প্রাচী, লেখক ও শিক্ষক ঝর্ণা রহমান এবং ‘উই’-এর পরিচালক সাংবাদিক শরীফা বুলবুল।

ঈদের শুভেচ্ছা উপহার পাওয়া মুক্তিযোদ্ধারা হলেন—রিজিয়া বেগম, রাজিয়া বেগম, স্বর্ণলতা ফলিয়া, লুৎফা বেগম, রঙমালা, নূরজাহান বেগম, নাজমা বেগম, আনোয়ারা বেগম, রেজিয়া বেগম ও সাবিহা বেগম।

অনুষ্ঠানে নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের সভাপতি নাসিমুন আরা মিনু বলেন, ‘মুক্তিযোদ্ধাদের অবদানের কারণে আমরা বেঁচে আছি। এই কথাটি যেন আমরা কখনও ভুলে না যাই। তাদের অবদান কিন্তু আমরা সবসময় মনে রাখি না। আজকে যে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, এসব

কিছুর পেছনে অবদান কিন্তু মুক্তিযোদ্ধাদের।’

তিনি আরও বলেন, ‘মুক্তিযোদ্ধা বীরাঙ্গনাদের স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে, এতে আমরা সন্তুষ্ট। আমরা দাবি করি, প্রত্যেকটি রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে বীরাঙ্গনাদের আমন্ত্রণ জানাতে হবে। তাদের প্রথম সারিতে বসতে দিতে হবে। তাদের প্রত্যেকটি রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে সম্মান দিতে হবে।’

মহিলা আওয়ামী লীগের সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক রোকেয়া প্রাচী বলেন, ‘‘বীরাঙ্গনাদের জন্য ‘উই’ এ কাজটি করে যাচ্ছে একা একাই। হয়তো সাধ অনেক বেশি, সাধ্য সীমিত, তাতে কিছু যায় আসে না। কেউ যদি শুরু করে, তাতে হয়তো অন্যরা যুক্ত হবে। এই আয়োজন এক সময় বড় হবে। তা দেখে বোধোদয় ঘটবে মানুষের। আসলে যত কথাই বলি না কেন, ঋণের বোঝা কমবে না কখনও। আমার মনে হয়, আপনাদের প্রাপ্য যতটুকু দেওয়া দরকার, তার এক কড়াও দিতে পারিনি।’

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন, কবি কাজী রোজী, লেখক ও শিক্ষক ঝর্ণা রহমান এবং সংগঠনটির পরিচালক শরিফা বুলবুল। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন কবি ও গল্পকার মোর্শেদা নাসির।

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট

সর্বশেষ..