বিশ্ব বাণিজ্য

৫৮ কোটি ডলার ক্ষতি দাবি চীনা এয়ারলাইনসের

৭৩৭ ম্যাক্স উড়োজাহাজের উড্ডয়ন বন্ধ

শেয়ার বিজ ডেস্ক: বিমান দুর্ঘটনার পর বিশ্বব্যাপী বোয়িংয়ের ৭৩৭ মাক্স উড়োজাহাজের উড্ডয়ন বন্ধ রাখা হয়েছে। আর বন্ধ থাকায় আগামী জুন পর্যন্ত চার বিলিয়ন ইউয়ান বা ৫৭ কোটি ৯০ লাখ ডলার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেছে চায়না এয়ার ট্রান্সপোর্ট অ্যাসোসিয়েশন (সিএটিএ)। তারা মার্কিন উড়োজাহাজ নির্মাতা বোয়িংয়ের কাছে এ ক্ষতিপূরণ দাবি করেছে। খবর: রয়টার্স।
৭৩৭ ম্যাক্স মডেলটি পরপর দু’দফা বিধ্বস্ত হলে ৩৪৬ জনের প্রাণহানির ঘটনা ঘটে। এরপর চীনের নীতিনির্ধারকরাই প্রথম এ মডেলের উড্ডয়ন বন্ধ করেন। প্রতিবেদনমতে, উড়োজাহাজগুলোর উড্ডয়ন বন্ধ রাখায় এবং ৭৩৭ ম্যাক্স জেট সরবরাহে দেরি করায় মার্কিন উড়োজাহাজ নির্মাতা বোয়িংয়ের কাছে ক্ষতিপূরণ দাবি করেছে এয়ার চায়না, চায়না সাউদার্ন ও চায়না ইস্টার্ন। উড়োজাহাজশিল্পের নীতিনির্ধারকদের বৈশ্বিক সম্মেলনের প্রাক্কালে এমন দাবি করল এয়ারলাইনসগুলো। এতে বোয়িং আরও চাপে পড়বে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।
এদিকে নিরাপত্তা ত্রুটির কারণে বিশ্বজুড়ে উড্ডয়ন বন্ধ রাখা বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স মডেলের উড়োজাহাজ বহরে ফেরানোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে ব্যর্থ হয়েছে এয়ারলাইনসগুলোর নীতিনির্ধারকরা। কবে নাগাদ এ মডেলের উড়োজাহাজ উড্ডয়ন শুরু হতে পারে সে ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়ার লক্ষ্যে গত শুক্রবার আলোচনা করছেন তারা। যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল এভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (এফএএ) উদ্যোগে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু কোনো সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারেনি।
গত মার্চ থেকে বিশ্বজুড়ে বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স মডেলের উড়োজাহাজের উড্ডয়ন বন্ধ রয়েছে। মাত্র পাঁচ মাসের মধ্যে এ মডেলের উড়োজাহাজের দুটি বড় দুর্ঘটনায় অন্তত ৩৪৬ জনের প্রাণহানি ঘটলে এর উড্ডয়ন বন্ধ করে দেওয়া হয়। নিরাপত্তাগত ত্রুটি দূর করতে এরই মধ্যে এর সফটওয়্যার ব্যবস্থা আপডেট করেছে বোয়িং। তবে পুনরায় উড্ডয়ন শুরু করতে হলে অবশ্যই এফএএ’র অনুমোদনের প্রয়োজন হবে।
বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স উড়োজাহাজের আপডেট করা সফটওয়্যারের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা আরও উন্নত করেছে বোয়িং। এর মাধ্যমে দ্রুত উচ্চতায় উঠে যাওয়ার যে সমস্যা তৈরি হচ্ছিল, তা থেকে মুক্তি মিলতে পারে বলে বিশ্বের সবচেয়ে বড় উড়োজাহাজ নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি মনে করছে।

 

সর্বশেষ..



/* ]]> */