প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

অগ্রণী ব্যাংকের সাবেক ডিজিএম নুরুল আমিনকে গ্রেপ্তারের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঋণের ১৫০ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগের মামলায় অগ্রণী ব্যাংকের আগ্রাবাদ করপোরেট শাখার তৎকালীন উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) মো. নুরুল আমিনকে গ্রেপ্তারে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। গতকাল বৃহস্পতিবার বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক। দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী এম এ আজিজ খান।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আমিন উদ্দিন মানিক জানান, অগ্রণী ব্যাংকের চট্টগ্রামের আগ্রাবাদ শাখা থেকে ১৫৫ কোটি ৪৪ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ২০১৮ সালের ১৬ মে ডবলমুরিং থানায় অগ্রণী ব্যাংকের তৎকালীন পাঁচ কর্মকর্তা ও ইলিয়াস ব্রাদার্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সামসুল আলমসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন দুদকের উপপরিচালক মো. সামসুল আলম।

পরে এ মামলায় উচ্চ আদালত থেকে অন্তর্বর্তীকালীন জামিন নিয়ে আত্মসমর্পণের পর একই বছরের ১৭ জুলাই নুরুল আমিনকে কারাগারে পাঠান চট্টগ্রামের আদালত। এরপর তিনি হাইকোর্টে জামিন চেয়ে আবেদন করেন। হাইকোর্ট ২০১৮ সালের ১৪ অক্টোবর তাকে জামিন দিয়ে রুল জারি করেন। ওই আদেশের পর তিনি জামিনে মুক্ত হন।

সম্প্রতি এ মামলায় চার্জশিট দেয়া হয়। তখন নুরুল আমিন বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণের আবেদন দিয়েও হাজির হননি। এ অবস্থায় তার জামিনের ওপর রুল শুনানি শেষে তা খারিজ করে দেন। একইসঙ্গে তাকে গ্রেপ্তারে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছেন।