খবর

অটোমেশন নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করবে

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, বিদ্যুৎ খাতে অটোমেশন নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করবে। ডিসেম্বরের মধ্যেই দুর্গম পাহাড়ি অঞ্চল থেকে শুরু করে বিচ্ছিন্ন দ্বীপ এলাকায় সাবমেরিন কেব্ল এবং সোলার মিনি গ্রিডের মাধ্যমে শতভাগ মানুষের কাছে বিদ্যুৎ পৌঁছে যাবে। ইতোমধ্যে গ্রিড এলাকায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন করা হয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী গতকাল ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট, বাংলাদেশ-আইইবি কর্তৃক আয়োজিত ‘ফোর্থ ইন্ডাস্ট্রিয়াল রেভ্যুলেশন: বাংলাদেশ পার্সপেক্টিভ’-শীর্ষক সেমিনারে অনলাইনে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, চতুর্থ ‘শিল্প বিপ্লবের সঙ্গে তাল মিলিয়ে দেশের বিদ্যুৎ খাতও সম্পূর্ণ ডিজিটালাইজ হচ্ছে। এরই মধ্যে বিদ্যুৎ বিভাগ ইআরপি বাস্তবায়নের কাজ শুরু করেছে। স্মার্ট প্রি-পেমেন্ট মিটার, স্মার্ট গ্রিড সিস্টেম, স্ক্যাডা সিস্টেম, আন্ডারগ্রাউন্ড ক্যাবলিং, বিগ ডাটা এনালাইসিস সব প্রস্তুতিই বিদ্যুৎ বিভাগ নিয়েছে।

বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী বলেন, ঢাকার ধানমন্ডি এলাকায় আন্ডার লাইন ক্যাবলিংয়ের কাজ শুরু হয়েছে, যা স্মার্ট স্ক্যাডা সেন্টার এবং আইওটির সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকবে। এখান থেকে বিগ ডাটা এনালাইসিস করে গ্রাহককে আরও নিরবচ্ছিন্ন ও মানসম্পন্ন সেবা দেয়া যাবে।

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অফ বাংলাদেশের উপাচার্য অধ্যাপক ড. প্রকৌশলী মুহাম্মদ মাহফুজুল ইসলাম। মূল প্রবন্ধে তিনি বলেছেন, চতুর্থ ‘শিল্প বিপ্লবের আগের তিনটি ‘শিল্প বিপ্লব পাল্টে দিয়েছে সারা বিশ্বের গতিপথ। প্রথম ‘শিল্প বিপ্লবটি হয়েছিল ১৭৮৪ সালে বাষ্পীয় ইঞ্জিন আবিষ্কারের মাধ্যমে। এরপর ১৮৭০ সালে বিদ্যুৎ ও ১৯৬৯ সালে ইন্টারনেটের আবিষ্কার শিল্প বিপ্লবের গতিকে বাড়িয়ে দেয় কয়েক গুণ। ৪র্থ শিল্প বিপ্লবের ক্ষেত্রে আমাদের টিকে থাকতে হলে বেশি জোর দিতে দক্ষতা অর্জনের ওপর। এ কারণে আমাদের সম্পূর্ণ শিক্ষা কারিকুলামকেই ঢেলে সাজাতে হবে।

আইইবির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মো. নূরুল হুদার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তফা জব্বার। বিশেষ অতিথি হিসেবে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক এবং আইইবি’র সাবেক সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মো. আব্দুস সবুর সংযুক্ত থেকে বক্তব্য রাখেন।

‘ফোর্থ ইন্ডাস্ট্রিয়াল রেভ্যুলেশন: বাংলাদেশ পার্সপেক্টিভ’-শীর্ষক সেমিনারটি সঞ্চালনা করেন পাওয়ার সেলের মহাপরিচালক ও আইইবি’র ভাইস প্রেসিডেন্ট ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ হোসেন।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..