Print Date & Time : 2 July 2022 Saturday 11:33 am

অনুশীলনের শুরুতেই ওয়ালশকে পাচ্ছেন না তাসকিনরা

ক্রীড়া প্রতিবেদক: শ্রীলঙ্কা সফরের জন্য বৃহস্পতিবার অনুশীলন শুরু হওয়ার কথা ছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের। কিন্তু মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে গিয়ে গতকাল জানা গেল, মুশফিকদের অনুশীলন হবে আজ থেকে। কেন এমনটা হলো তার কোনো সঠিক উত্তর পাওয়া যায়নি কারও কাছ থেকে। হয়তো কোচিং স্টাফরা গতকাল পর্যন্ত ঢাকাতে না পৌঁছাতে পারায় হঠাৎই টাইগারদের অনুশীলনের সময় পেছালো একদিন। তারপরও লঙ্কান সিরিজের অনুশীলনের প্রথম দিনে বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশকে পাচ্ছে না টিম বাংলাদেশ। সংবাদমাধ্যমকে এমনটাই জানিয়েছেন ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজন।

নিউজিল্যান্ড ও ভারত সফরে ব্যক্তিগত কারণে ম্যানেজার পদে ছিলেন না সুজন। তবে লঙ্কা সফরের মধ্য দিয়ে জাতীয় দলে আগের জায়গায় ফিরছেন সাবেক এই অলরাউন্ডার। গতকাল আসন্ন সিরিজ নিয়ে সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার এক পর্যায়ে তিনি বলেন, ‘এরই মধ্যে কোচিং স্টাফদের সবার ফেরার কথা। অনুশীলনের শুরু থেকে সবাই থাকবেন আশা করি। মারিও ভিল্লাভারায়নের অধীনে কন্ডিশনিং দিয়ে অনুশীলন শুরু হবে। তারপর স্কিল নিয়ে কাজ। হেড কোচ তো অবশ্যই থাকবেন। ওয়ালশের মনে হয় একটু দেরি হবে। বাকি সবাই চলে আসবেন।’

আজ সকাল ১০টায় মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুরু হবে মুশফিকদের অনুশীলন। মারিও ভিল্লাভারায়নের অধীনে কন্ডিশনিং দিয়ে শুরু লঙ্কান সিরিজের অনুশীলন পর্ব। এরপর ক্রিকেটারদের স্কিল নিয়ে কাজ করবেন হেড কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। থাকছে বোলিং ও ফিল্ডিং অনুশীলনও।

গতকাল দলীয় অনুশীলন শুরু না হলেও ঠিকই নিজেকে ঝালিয়ে নিয়েছেন মুশফিকুর রহিম। ইনডোরে কিছুক্ষণ নেট প্র্যাকটিস করেন বাংলাদেশ টেস্ট অধিনায়ক। এরপরই জিমে যান তিনি।

চলতি বছর এখন পর্যন্ত নিউজিল্যান্ড ও ভারত সফরে ভালো খেলেছে বাংলাদেশ। হয়তো ফল টাইগারদের অনুকূলে আসেনি। কিন্তু সেসব পেছনে ফেলে শ্রীলঙ্কা সফরে মুশফিক-মাশরাফিরা ভালো করবেন বলেই বিশ্বাস সুজনের। গতকাল যেমনটা বলছিলেন তিনি, ‘মুশফিকরা গত দুই সিরিজে ভালো খেলেছে, যদিও রেজাল্ট বলবে আমরা হেরেছি। কিন্তু আমাদের খেলোয়াড়রা ভালো করেছে। শ্রীলঙ্কা আমাদের জন্য খুব চ্যালেঞ্জিং সফর হবে।’

শ্রীলঙ্কার সঙ্গে বাংলাদেশের আবহাওয়ার রয়েছে বেশ মিল। যে কারণে সেখানে নিজেদের মানিয়ে নিয়ে খুব একটা সমস্যায় পড়তে হবে না টাইগারদের। গত দুটি সিরিজ থেকে পাওয়া অভিজ্ঞতা আসন্ন সিরিজে কাজে লাগাতে পারলে বাংলাদেশ ভালো কিছু করবে। বলছিলেন সুজন, ‘তাদের কন্ডিশন আর আমাদের কন্ডিশনের মধ্যে খুব একটা পার্থক্য নেই। আর গত কয়েকটি সিরিজের অভিজ্ঞতা শ্রীলঙ্কায় কাজে লাগাতে পারলে ভালো ফল আসতে পারে।’

আগামী ৭ মার্চ গলে হবে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা প্রথম টেস্ট। দ্বিতীয় টেস্ট ১৯ মার্চ কলম্বোয়। এর আগে ২-৩ মার্চ দুদিনের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে টাইগাররা। সফরে তিন ওয়ানডে এবং দুই ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজও রয়েছে মাশরাফি-সাকিবদের। আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি দেশ ছাড়ার কথা বাংলাদেশ দলের।