আজকের পত্রিকা স্পোর্টস

অনুশীলনে ফিরছে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল!

ক্রীড়া প্রতিবেদক: করোনাভাইরাসের প্রভাবে স্থগিত থাকা ক্রিকেট মৌসুম মাঠে ফেরানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)। আগামী সপ্তাহ থেকে একক পর্যায়ে অনুশীলন শুরু করবেন ইংল্যান্ডের ক্রিকেটাররা। বিভিন্ন কাউন্টি মাঠে কোচ, ফিজিও এবং সম্ভব হলে ট্রেনারের উপস্থিতিতে অনুশীলন করবেন বোলাররা। এর দুই সপ্তাহ পর অনুশীলন শুরু করবেন বাকি ক্রিকেটাররা, জানিয়েছেন ইসিবি ডিরেক্টর অ্যাশলি জাইলস। সর্বোচ্চ সতর্কতা নিশ্চিত করতেই এই ব্যবস্থা বলে জানিয়েছেন তিনি।

আগামী ৪ জুন শুরু হওয়ার কথা ছিল ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজের তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। কিন্তু করোনাভাইরাসের প্রকোপে ইংল্যান্ডে ১ জুলাই পর্যন্ত সব ধরনের ক্রিকেট নিষিদ্ধ থাকায় অনির্দিষ্টকালের জন্য পিছিয়ে গেছে সিরিজটি। পরিস্থিতির উন্নতি হলেই যা আয়োজন করতে মুখিয়ে আছে ইসিবি। সে লক্ষ্যে জোর প্রস্তুতি শুরু করতে চায় দলটি। চুক্তিবদ্ধ ও কাউন্টি দলের খেলোয়াড় মিলে প্রায় ৩০ জন ক্রিকেটারকে ১১টি ভেন্যুতে অনুশীলনের জন্য ডাকা হবে। খেলোয়াড় ও ভেন্যু ঠিক করা হবে আগামী সোমবার। কিছু কাউন্টি কোচ ও স্টাফদেরও সহায়তা নিবে ইসিবি।

আসছে কয়েক সপ্তাহে শীর্ষ পর্যায়ের অ্যাথলেটরা কিভাবে অনুশীলন করবেন-তার একটি নির্দেশিকা গত বুধবার জারি করে দেশটির সরকার। এর সঙ্গে মিল রেখে নানা পরিকল্পনা নিয়েছে ইসিবি; অনুশীলনে সামাজিক দ‚রত্ব বজায় রাখা, প্রতিদিন দলের সবার তাপমাত্রা ও আরও কিছু পরীক্ষা করানোর মত উদ্যোগ নিচ্ছে ইসিবি। জুনের শেষ নাগাদ অনুশীলনে ফিরবেন দেশটির নারী ক্রিকেটাররা। কাউন্টি দলগুলো কবে নাগাদ অনুশীলনে ফিরতে পারবে, এ বিষয়ে চলতি মাসের শেষের দিকে নির্দেশনা দেওয়া সম্ভব হবে বলে মনে করছে ইসিবি।

অবশ্য যে সিরিজের জন্য এত তোড়জোড়, তা এখনও রয়েছে ধোঁয়াশায়। ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রধান জনি গ্রেভ জানিয়েছেন, ইংল্যান্ড সফর নিয়ে খুব উদ্বিগ্ন দেশটির ক্রিকেটাররা। চিন্তামুক্ত নন জাইলসও। তিনি জানান, ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রশ্নের জবাব দিতে তারা সম্ভাব্য সবকিছু করছেন, ‘আমরা সবাইই উদ্বিগ্ন, তাই না? গত সপ্তাহে আমি কেনার জন্য গিয়েছিলাম এবং বাইরে যাওয়াটা সত্যিই চিন্তার বিষয়। কাছাকাছি আসা যে কেউ হুমকি হয়ে যাচ্ছে। সময়ে এটা ঠিক হয়ে যাবে।”

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..