স্পোর্টস

অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপ দুর্দান্ত শুরু জুনিয়র টাইগারদের

ক্রীড়া ডেস্ক: তানজিম হাসান সাকিব, শরিফুল ইসলাম ও রাকিবুল হাসানের বোলিং নৈপুণ্যে সংযুক্ত আরব আমিরাত অনূর্ধ্ব-১৯ দলকে অল্প রানের মধ্যেই গুটিয়ে দেয় বাংলাদেশ। পরে তানজিদ হাসানের ঝড় আর মাহমুদুল হাসান জনির দায়িত্বশীল ব্যাটে ভর করে দাপুটে জয় পায় জুনিয়র টাইগাররা। তাতে এ টুর্নামেন্টে পথচলার শুরুটা দুর্দান্ত হয়েছে জুনিয়র টাইগারদের।
শ্রীলঙ্কার কাটুনায়েকের এফজে স্পোর্টস কমপ্লেক্সে গতকাল সংযুক্ত আরব আমিরাত অনূর্ধ্ব-১৯ দলকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে বাংলাদেশ। এর আগে টস জিতে আগে বল হাতে নিয়ে ৪৫ ওভারে নেমে আসা ম্যাচে প্রতিপক্ষকে ২৮ ওভারে মাত্র ১২৭ রানে গুটিয়ে দেয় টাইগার যুবারা। এরপর ২১.৩ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় আকবার আলীর দল। লাল-সবুজ প্রতিনিধিদের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৫ রান করেন তানজিদ হাসান। এদিকে মাহমুদুল হাসান জনি ৪০ বলে ২৭ রানে অপরাজিত ছিলেন। পারভেজ হাসান ইমনের ব্যাট থেকে আসে ৩০ রান। এদিকে তৌহিদ হৃদয় করেন ১৮ রান। ৫ রানে অপরাজিত ছিলেন অধিনায়ক আকবার আলী।
এর আগে সংযুক্ত আরব আমিরাতকে ১২৭ রানে গুটিয়ে দিতে ৭ ওভার হাত ঘুরিয়ে ৩৬ রানে তানজিম হাসান নেন ৩টি উইকেট। এদিকে শরিফুল ৫ ওভারে ১৬ রানে নেন ২টি উইকেট। এছাড়া রাকিবুল হাসান ৭ ওভারে ২৫ রান দিয়ে পকেটে পুরেন ৩টি উইকেট।
সহজ লক্ষ্য তাড়ায় তানজিদ ও পারভেজের ব্যাটে ৭.৪ ওভারে ৬২ রানের ভালো শুরু পায় বাংলাদেশ। এরপর তানজিদ ২৭ বলে ৩ চার ও ৪ ছয়ে ৪৫ রান করে ফিরলেও মাহিদুল হাসানের সঙ্গে পারভেজ গড়েন ৩৩ রানের জুটি। তাতে জয়ের খুব কাছে পৌঁছে যায় জুনিয়র টাইগাররা। শেষ পর্যন্ত পারভেজ ৩৩ বলে ৩ চার ও ১ ছয়ে ৩০ রানে ফিরলেও জিততে কোনো সমস্যা হয়নি লাল-সবুজ প্রতিনিধিদের। বাকি কাজটা এক প্রান্ত আগলে করেন জনি। মাঝে অবশ্য তৌহিদ হৃদয় ২০ বলে ৩ চারে ১৮ রানে সাজঘরে ফেরেন।
এর আগে সংযুক্ত আরব আমিরাতের ব্যাটিং লাইন শুরুতেই ধসিয়ে দেন তানজিম-শরিফুলরা। ২৭ রানের মধ্যেই প্রতিপক্ষের ৫ ব্যাটসম্যানকে সাজঘরের পথ দেখান তারা। মাঝে অবশ্য লাল-সবুজ প্রতিনিধিদের একটু পরীক্ষায় ফেলেছিলেন প্রতিপক্ষের আলিসান শারাফু (৩৪) ও ওসমান হাসান (৫৮)। ষষ্ঠ উইকেটে তারা গড়েছিলেন ৬৯ রানের জুটি। তারপরও দলটি বেশিদূর এগোতে পারেনি। পরে তাই সহজেই জিতে যায় বাংলাদেশ।
ঝড়ো ব্যাটিংয়ের সুবাদে তানজিদ হাসান হয়েছেন ম্যাচসেরা।

 

সর্বশেষ..