করপোরেট কর্নার

অবশেষে চট্টগ্রামে চালু হলো ওয়াটার বাস সার্ভিস

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম থেকে বিভিন্ন গন্তব্যের বিমানযাত্রীদের ধূলিবালি, যানজট থেকে বাঁচিয়ে নিরাপদ ও দ্রুততম সময়ের মধ্যে সদরঘাট থেকে বিমানবন্দর পৌঁছে দিতে কর্ণফুলীতে চালু হলো ওয়াটার বাস সার্ভিস। এ গন্তব্যে যেতে সময় লাগছে সবমিলিয়ে ৩০ মিনিট। গতকাল সকাল ৭টায় সদরঘাটের ওয়াটার বাস টার্মিনাল থেকে যাত্রী নিয়ে ২৫ নটিক্যাল মাইল গতিতে ছুটে যায় প্রথম ওয়াটার বাসটি। প্রতিটি এসি ওয়াটার বাস ২৫ জন যাত্রী বহনে সক্ষম। সঙ্গে লাগেজ রাখা, ওয়াইফাই সুবিধা, পতেঙ্গা টার্মিনাল থেকে বিমানবন্দর পর্যন্ত শাটল বাস ইত্যাদি রয়েছে।

জানা যায়, প্রাথমিকভাবে দুটি ওয়াটার বাস দিয়ে সদরঘাট থেকে বিমানবন্দর পর্যন্ত গন্তব্যে যেতে সময় লাগছে ৩০ মিনিট। যেখানে সড়কপথে যা পার হতে কমপক্ষে দুই ঘণ্টারও বেশি সময় লাগছে। আর যানজট হলে তিন থেকে চার ঘণ্টা। ওয়াটার বাস সার্ভিস পরিচালনা করবে এসএস ট্রেডিং নামের একটি প্রতিষ্ঠান।

শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ওয়াটার বাসে সদরঘাট থেকে বিমানবন্দরে যাওয়ার ক্ষেত্রে যাত্রীপ্রতি প্রাথমিকভাবে ভাড়া নির্ধারণ করেছে ৪০০ টাকা। তবে চালু উপলক্ষে রাখা হচ্ছে ৩৫০ টাকা। পরে যাত্রীদের প্রয়োজনের কথা মাথায় রেখে ওয়াটার বাসের সংখ্যা বাড়ানো হবে। এছাড়া ফ্লাইটের সময়সূচির সঙ্গে সমন্বয় করে এই সার্ভিস চলবে।

চট্টগ্রাম বন্দর ও ব্যবসায়ী সূত্রে জানা যায়, দেশের প্রধান বাণিজ্যিক শহর চট্টগ্রাম। এ শহরের বেশিরভাগ বাণিজ্যিক কর্মচাঞ্চল্য চট্টগ্রাম বন্দরকে ঘিরে। এ বন্দর থেকে আমদানি ও রফতানিবাহী পণ্য পরিবহনে আছে ছয় হাজারের ট্রাক ও ট্রেইলর। অন্যদিকে গত কয়েক বছর চট্টগ্রামের বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন ও ওয়াসার পাইপলাইনের জন্য রাস্তা কাটাকাটি চলছে। আর শহরের প্রধান সড়কের বিকল্প একাধিক সড়ক না থাকায় বন্দরকেন্দ্রিক পণ্যবাহী যান চলাচল ও প্রকল্প বাস্তবায়নে যানজটে স্থবির হয়ে পড়ে নগর। এতে অনেক সময় দীর্ঘ যানজটের মুখে পড়তে হয়। ফলে বিলম্ব হয় ফ্লাইট শিডিউল ধরতে। অনেক সময় মিস হয় বিমান যাত্রা। এতে বিমানবন্দরগামী যাত্রীসহ সংশ্লিষ্ট এলাকার অফিসগামী মানুষজনের জন্য চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ কর্ণফুলীতে ওয়াটার বাস চালু হয়েছে।

ওয়াটার বাস পরিচালনায় নিয়োজিত এসএস ট্রেডিংয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাব্বাব হোসেন শেয়ার বিজকে বলেন, বিমানযাত্রীদের ৩০ মিনিটের মধ্যে শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছে দিতে ওয়াটার বাস সার্ভিস চালু করা হয়েছে। গতকাল সকাল ৭টায় সদরঘাটের ওয়াটার বাস টার্মিনাল থেকে যাত্রী নিয়ে ২৫ নটিক্যাল মাইল গতিতে ছুটে যায় প্রথম ওয়াটার বাসটি। এছাড়া সকাল ৮টায় দ্বিতীয় ট্রিপে যাত্রী ছিলেন দুজন।

১২টা ২৫ মিনিটে তৃতীয় ট্রিপেও যাত্রী ছিলেন দুজন। বিকাল ৩টা ও সন্ধ্যা ৭টা মিলে প্রতিদিন পাঁচটি ট্রিপ ছাড়া হবে সদরঘাট থেকে। এর বিপরীতে পতেঙ্গা থেকে সকাল সাড়ে ৮টা, সাড়ে ১১টা, বিকাল ২টা ২৫ মিনিট, সাড়ে ৪টা ও রাত সোয়া ৯টায় ছাড়বে ওয়াটার বাস।

উল্লেখ্য, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ প্রকল্প বাস্তবায়ন ও পরিচালনার দায়িত্ব চট্টগ্রাম ড্রাইডককে দেয়। আর ড্রাইডক ওয়াটার বাস পরিচালনার জন্য চুক্তি করে এসএস ট্রেডিংয়ের সঙ্গে। প্রতিষ্ঠানটি এককভাবে এ রুটে যাত্রী পরিবহন করবে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..