বিশ্ব সংবাদ

অবশেষে টেক্সাসে অ্যাপলের নতুন ক্যাম্পাস নির্মাণ শুরু

শেয়ার বিজ ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে সম্পূর্ণ নতুন একটি ক্যাম্পাসের নির্মাণকাজ শুরু করেছে দেশটির প্রযুক্তি জায়ান্ট অ্যাপল। টেক্সাসের অস্টিনে নির্মিতব্য ক্যাম্পাসটিতে নতুন ম্যাকবুক প্রো ল্যাপটপ তৈরি করা হবে। এছাড়া বিদ্যমান ক্যাম্পাসের সব কাজ অব্যাহত থাকবে বলেও প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে। পাশাপাশি নতুন মডেলের ম্যাক প্রো ডেস্কটপ আগামী ডিসেম্বর থেকে গ্রাহকদের কাছে সরবরাহ শুরু করার কথা জানিয়েছে অ্যাপল। খবর: রয়টার্স।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর থেকে তীব্র চাপের মুখে রয়েছে দেশটির শীর্ষস্থানীয়

প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান অ্যাপল, কারণ প্রতিষ্ঠানটির অধিকাংশ পণ্যই তৈরি করা হয় চীনে। তবে সাম্প্রতিক সময়ে এসে ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে সম্পর্কের বেশ উন্নতি হয়েছে অ্যাপলের প্রধান নির্বাহী টিম কুকের। ২০১৭ সালে ট্রাম্প ঘোষণা করেন, তিনটি বড় কারখানা নির্মাণের জন্য কুক তাকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

প্রায় ১০০ কোটি ডলার ব্যয়ে ৩০ লাখ স্কয়ার ফুটের নতুন ক্যাম্পাসে প্রাথমিকভাবে পাঁচ হাজার কর্মীর আবাসনের সুবিধা থাকবে। তবে পরে তা বৃদ্ধি করে ১৫ হাজার করা হবে। নতুন ক্যাম্পাস ২০২২ সালের দিকে চালু হতে পারে বলে অ্যাপল জানিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের দ্রুত বর্ধমান শহরগুলোর মধ্যে একটি অস্টিন। সেখানকার জনসংখ্যা প্রায় ১০ লাখ। ওই অঞ্চলে ইউনিভার্সিটি অব টেক্সাস ছাড়াও ডেলসহ বড় কয়েকটি প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। অস্টিনে বর্তমানে অ্যাপলের প্রায় সাত হাজার কর্মী আছেন। এক বিবৃতিতে অ্যাপল জানিয়েছে, তারা বোল্ডার, কালভার সিটি, নিউইয়র্ক, পিটসবুর্গ, স্যান ডিয়েগো এবং সিয়াটলেও তাদের সম্প্রসারণ কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন।

প্রতিষ্ঠানটি আরও জানিয়েছে, নতুন ম্যাকবুক প্রো গ্রাহকদের কাছে সরবরাহ করার প্রস্তুতি নিচ্ছে অ্যাপল। অস্টিন থেকে সামান্য দূরে একটি উৎপাদন ব্যবস্থা রয়েছে অ্যাপলের। সেখান থেকে আগামী ডিসেম্বরে পণ্য সরবরাহ শুরু হতে পারে।

চলতি বছরের শুরুর দিকে অ্যাপলের নতুন ম্যাক প্রো ডেস্কটপ কম্পিউটার তৈরির বিষয়টি রাজনৈতিক বিতর্কের কারণে পরিণত হয়। সে সময় ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল এক প্রতিবেদনে জানায়, প্রতিষ্ঠানটি এ মডেলের কম্পিউটারের উৎপাদন কার্যক্রম চীনে সরিয়ে নিচ্ছেন। এ নিয়ে দেশটিতে তীব্র রাজনৈতিক বিতর্কের সূচনা হয়। নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই চীনে পণ্য তৈরি করায় অ্যাপলের তীব্র সমালোচনা করে আসছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..