Print Date & Time : 23 June 2021 Wednesday 6:06 pm

অভ্যুত্থানবিরোধীদের ‘নীরব ধর্মঘট’চলছে মিয়ানমারজুড়ে

প্রকাশ: April 17, 2021 সময়- 12:51 am

শেয়ার বিজ ডেস্ক : মিয়ানমারে আড়াই মাস ধরে চলা অভ্যুত্থানবিরোধী আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় এবার দেশজুড়ে ‘নীরব ধর্মঘট’ পালন করছেন সেনাশাসনবিরোধীরা। গতকাল শুক্রবারের এ ধর্মঘটে বাড়িতে থেকেই জান্তাবিরোধী আন্দোলনে নিহত সাতশ’র বেশি মানুষকে স্মরণ করতে এবং ঘর থেকে বের হলে কালো কাপড় পরতে বলা হয়েছে। খবর: রয়টার্স।

চলতি বছরের ১ ফেব্রুয়ারি সেনা অভ্যুত্থানের পর দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার দেশটির লাখ লাখ মানুষ রাস্তায় নেমে সেনাশাসনের বিরুদ্ধে তাদের সরব অবস্থান ব্যক্ত করেছেন; রক্ত দিয়ে, নির্যাতন-নিপীড়ন উপেক্ষা করে দিনের পর দিন তারা জান্তাবিরোধী আন্দোলন চালিয়ে গেছেন।

সাম্প্রতিক দিনগুলোয় মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর দমনপীড়নের মাত্রা বেড়ে যাওয়ায় গণতন্ত্রপন্থি আন্দোলনের কর্মীরা প্রতিবাদের নিত্যনতুন উপায় বের করার চেষ্টা করছেন। তারই অংশ হিসেবে গতকাল শুক্রবার এ ‘নীরব ধর্মঘট’ ডাকা হয়েছে।

‘চলুন, সড়কগুলোকে নীরব করে ফেলি। নিজেদের জীবন বিলিয়ে দেওয়া শহীদদের প্রতি শোক দেখাতে আমরা এই নীরব ধর্মঘট করব। এ নিঃশব্দ কণ্ঠই উচ্চস্বরে কথা বলবে,’ ফেসবুক পেজে এমনটাই লিখেছেন বিক্ষোভকারীদের অন্যতম নেতা এই থিনজার মং।

‘নীরব ধর্মঘটের’ আগের রাতেই মিয়ানমারের মধ্যাঞ্চলীয় শহর মিংগিয়ানে সহিংসতায় দুজনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে রেডিও ফ্রি এশিয়া। এদিন নিহত হয়েছেন স্বাস্থ্যকর্মীরাও।

বৃহস্পতিবার নিরাপত্তা বাহিনী সেনাশাসনবিরোধী বিক্ষোভের দুই সুপরিচিত সংগঠকের পাশাপাশি অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়া এক অভিনেতা ও এক গায়ককে গ্রেপ্তার করেছে।

একই দিন সেনাবাহিনী মান্দালয়ের একটি বৌদ্ধ মঠেও অভিযান চালায়। সেখান থেকেও তারা দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে বলে মিয়ানমার নাও’র এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ভোটে কারচুপির অভিযোগে গত ১ ফেব্রুয়ারি সেনা অভ্যুত্থানের মাধ্যমে মিয়ানমারের ক্ষমতা দখল করে জান্তা সরকার। গ্রেপ্তার করে অং সাং সূ চি-সহ হাজার হাজার নেতাকর্মীকে। সেনাবিরোধী বিক্ষোভ মিছিলে নির্দ্বিধায় গুলি চালিয়েছে নিরাপত্তা বাহিনী। এতে এ পর্যন্ত সাত শতাধিক বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছেন এবং আহত ও গ্রেপ্তার হয়েছেন হাজার হাজার মানুষ।