বাণিজ্য সংবাদ শিল্প-বাণিজ্য

অর্থনীতি পুনরুদ্ধারের পূর্বশর্ত কর আহরণে অটোমেশন

এনবিআরে ডিসিসিআইয়ের বাজেট প্রস্তাব

নিজস্ব প্রতিবেদক: ২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেটে অন্তর্ভুক্তির জন্য ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই) জাতীয় রাজস্ব বোর্ডে (এনবিআর) প্রস্তাব জমা দিয়েছে। এনবিআর চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিমের কাছে গতকাল এ প্রস্তাব হস্তান্তর করেন ডিসিসিআইয়ের সভাপতি রিজওয়ান রাহমান। ঢাকা চেম্বার ২০২১-২২ অর্থবছরের জাতীয় বাজেটে অন্তর্ভুক্তির জন্য আয়কর, মূসক ও শুল্কসংক্রান্ত বিষয়ে এনবিআরে মোট ৩৭টি প্রস্তাব পেশ করেছে। ডিসিসিআই ঊর্ধ্বতন সহসভাপতি এনকেএ মবিন, সহসভাপতি মনোয়ার হোসেন এবং জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

ডিসিসিআই সভাপতি রিজওয়ান রাহমান আগামী বাজেটে করোনা-পরবর্তী ব্যবসা-বাণিজ্যের পরিবেশ পুনরুদ্ধারকরণ, সহজ ও ব্যবসাবান্ধব আয়কর ব্যবস্থা, আয়কর ও মূল্য সংযোজন করের আওতা বৃদ্ধি, রপ্তানি বহুমুখীকরণ ও স্থানীয় শিল্পায়ন উৎসাহিত করা এবং বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ নিশ্চিতকরণে ওপর জোরারোপের জন্য এনবিআরের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি প্রগ্রেসিভ হারে সব স্তর থেকে করপোরেট কর হার আগামী ২০২১-২২, ২০২২-২৩ ও ২০২৩-২৪ অর্থবছরে পর্যায়ক্রমে দুই দশমিক পাঁচ শতাংশ, পাঁচ শতাংশ ও সাত দশমিক পাঁচ শতাংশ হারে হ্রাস করা, করপোরেট ডিভিডেন্ডের আয়ের ওপর বিদ্যমান ২০ শতাংশের পরিবর্তে ১০ শতাংশ কর নির্ধারণ করার প্রস্তাব করেন। এতে করে হ্রাসকৃত করপোরেট কর পুনর্বিনিয়োগের সুযোগ সৃষ্টি হবে। ফলে নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টিসহ কর আহরণের নতুন উৎস সৃষ্টি করা সম্ভব হবে বলে ডিসিসিআই মনে করে।

ঢাকা চেম্বারের সভাপতি বলেন, এনবিআর কর্তৃক প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী টিনধারী করদাতার সংখ্যা ৫০ লাখ হলেও নিয়মিত ২৪ লাখ টিনধারী রিটার্ন দাখিল করেন। এমতাবস্থায় করের আওতা বাড়ানোর লক্ষ্যে আয়কর প্রদান প্রক্রিয়া সহজীকরণ ও সম্পূর্ণ স্বয়ংক্রিয় অনলাইন ট্যাক্স রিটার্ন জমা দেয়ার ব্যবস্থা করার প্রস্তাব করেন। যার ফলে দেশের কর প্রদান ব্যবস্থা সহজ হবে এবং ব্যবসার পরিবেশ সূচক উন্নয়নে এটি কার্যকর ভূমিকা রাখবে বলে চেম্বার সভাপতি মনে করেন। তিনি সেবা খাতে ১৫ শতাংশ ভ্যাট প্রদানের পরও উৎসে মূসক কর্তন থেকে অব্যাহতির প্রদানের প্রস্তাব করেন। পাশাপাশি কাঁচামাল ও ক্যাপিটাল মেশিনারিজ আমদানি করার ক্ষেত্রে অগ্রিমকর বিলুপ্ত করার আহ্বান জানান। ঢাকা চেম্বারের সভাপতি পুঁজিবাজারে গ্রিনফিল্ড অবকাঠামো প্রকল্পে বিনিয়োগ উৎসাহিত করতে পাঁচ বজরের জন্য কর অব্যাহতি প্রদানের প্রস্তাব করেন।

এছাড়াও স্থানীয় বাজারে পাটপণ্য বিক্রয়ে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড কর্তৃক মূসক রহিতকরণের সুযোগ আরও পাঁচ বছর বাড়ানোর প্রস্তাব করেন এবং চামড়া খাতে রপ্তানি বহুমুখীকরণের জন্য পোশাক খাতের ন্যায় চামড়া শিল্পের করপোরেট কর হার ও গ্রিন কোম্পানির জন্য করপোরেট করহার হ্রাস করার প্রস্তাব করেন। সে সঙ্গে চামড়াজাত পণ্য ও পাদুকা শিল্পের বন্ড লাইসেন্স প্রাপ্তির দীর্ঘসূত্রতা হ্রাস করা ও তৈরি পোশাক খাতের ন্যায় চামড়া খাতেও বন্ড লাইসেন্স প্রতি তিন বছরের জন্য নবায়ন করার দাবি জানান। তিনি ইলেকট্রিক গাড়ি চার্জিং স্টেশন তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণের ওপর কর অব্যাহতি প্রদানের প্রস্তাব করেন, যার মাধ্যমে পরিবশেবান্ধব যানবাহন ব্যবহার করা জনগণের জন্য সহজতর হবে এবং ব্যাকওয়ার্ড লিঙ্কেজ শিল্প গড়ে উঠবে বলে ডিসিসিআই জানায়।

এনবিআর চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম বলেন, দেশের কর ও শুল্ক কাঠামা এবং আহরণ প্রক্রিয়ার সহজীকরণ করতে হবে। যার মাধ্যমে ব্যবসায়ী সমাজের ভোগান্তি কমবে এবং রাজস্ব আহরণের পরিমাণ বাড়বে। এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, আমাদের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড সম্প্রসারণের ওপর বেশি মাত্রায় গুরুত্ব প্রদান করতে হবে, এর ফলে রাজস্ব আহরণের পরিধি বৃদ্ধি পাবে। তিনি শিল্প-কারখানাগুলোকে আরও বেশি হারে কমপ্লায়েন্স বাস্তবায়নের আহ্বান জানান, যার মাধ্যমে ব্যবসায়ী ও রাজস্ব ব্যবস্থাপনার মধ্যকার সম্পর্ক আরও সুদৃঢ় হবে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..