অর্থ সহায়তা স্থগিত করল বিশ্বব্যাংক

শেয়ার বিজ ডেস্ক: অন্তর্বর্তী সরকারকে হটিয়ে সামরিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে সেনাবাহিনী ক্ষমতা দখল করায় উত্তর আফ্রিকার দেশ সুদানে অর্থ সহায়তা স্থগিত করেছে বিশ্বব্যাংক। এ ঘটনার নিন্দা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। আর অভ্যুত্থানের বিরোধিতা করায় সুদানের ছয় রাষ্ট্রদূতকে অব্যাহতি দিয়েছে সামরিক বাহিনী। খবর: আল জাজিরা, রয়টার্স।

সোমবার দেশটির সশস্ত্র বাহিনীর প্রধান জেনারেল আব্দেল ফাত্তাহ আল-বুরহান অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করার পর থেকে সুদানের হাজার হাজার গণতন্ত্রকামী জনতা রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ-প্রতিবাদ করছেন। নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে বেশ কয়েকজন বিক্ষোভকারীর প্রাণহানি ঘটে।

২০১৯ সালে এক আন্দোলনে স্বৈরশাসক ওমর আল-বশির ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর দেশটিতে গণতন্ত্র ফেরাতে গঠন করা হয় সামরিক-বেসামরিক নেতৃত্বের যৌথ এক সার্বভৌম কাউন্সিল। অভ্যুত্থানের হোতা জেনারেল বুরহান দেশের ক্ষমতা ছিনিয়ে নেয়ার পর এ কাউন্সিল ভেঙে দিয়ে জরুরি অবস্থা জারি করেন।

বশিরের শাসনের তিন দশকে আন্তর্জাতিক অর্থ-সহায়তা বঞ্চিত সুদানে গত মার্চে বিশ্বব্যাংক আবার কার্যক্রম শুরু করে। দেশটিতে দুই বিলিয়ন অর্থ সহায়তা দেয় বিশ্বব্যাংক। কিন্তু অভ্যুত্থানের প্রতিবাদে বিশ্ব আর্থিক সহায়তা ও নতুন কার্যক্রম স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নেয় বিশ্বব্যাংক। অন্যদিকে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) বলেছে, তারা সুদানের বর্তমান পরিস্থিতি নজরদারি করছে।

ছয় রাষ্ট্রদূতকে অব্যাহতি সামরিক বাহিনীর: এদিকে সুদানের ক্ষমতাসীন সামরিক বাহিনী যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, চীন, কাতার ও ফ্রান্সে নিযুক্ত সুদানের রাষ্ট্রদূত এবং সুইজারল্যান্ডের জেনেভা শহরে দেশটির মিশন প্রধানকে অব্যাহতি দিয়েছে। বুধবার গভীর রাতে রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমে এ সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা দেয় সামরিক বাহিনী। অভ্যুত্থানকে প্রত্যাখ্যানের জন্যই মূলত তাদের এ অব্যাহতি দেয়া হয়। ওইদিন সকালেই রাষ্ট্রদূতরা ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী আব্দাল্লাহ হামদককে দেখতে খার্তুমে তার বাসভবনে যান।

অভ্যুত্থানের নিন্দা যুক্তরাষ্ট্রের: এদিকে সুদানে সামরিক বাহিনীর ক্ষমতা দখল ও দেশটির বেসামরিক নেতাদের গ্রেপ্তারের নিন্দা জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন। গতকাল সুদানের ক্ষমতাচ্যুত সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মারিয়াম সাদিক আল-মাহদির সঙ্গে ফোনে কথা বলে তিনি ওয়াশিংটনের অবস্থানের কথা জানান।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন   ❑ পড়েছেন  ৯০  জন  

সর্বশেষ..