অ্যাপ ছাড়া রাইড শেয়ারে ব্যবস্থা: বিআরটিএ

নিজস্ব প্রতিবেদক: অ্যাপ ছাড়া চুক্তিতে মোটরবাইক কিংবা গাড়িতে যাত্রী বহনের বিষয়ে হুশিয়ার করেছে বিআরটিএ। গতকাল এক বিজ্ঞপ্তিতে সড়কে যান চলাচল নিয়ন্ত্রণকারী কর্তৃপক্ষ বলেছে, চুক্তিতে রাইড শেয়ার করলে কিংবা অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

রাইড শেয়ারিংয়ের বিষয়ে অনেক অভিযোগ আসায় বিজ্ঞপ্তি দিয়ে হুশিয়ার করা হয়েছে বলে জানান বিআরটিএ চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ মজুমদার।

তিনি বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে নানা অভিযোগ আছে। অ্যাপ ছাড়া রাইড শেয়ারিং করে এই বিষয়টি বন্ধ করা জরুরি।’

কয়েক বছর আগে ঢাকায় রাইড শেয়ারের অ্যাপ চালু হওয়ার পর দ্রুত তা জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। তবে সম্প্রতি দেখা যাচ্ছে, বিশেষ করে মোটরবাইকে অ্যাপ ছাড়াই দরকষাকষি করে ঢাকায় বাইক চালকরা যাত্রী বহন করছে। এতে নিরাপত্তা নিয়ে ঝুঁকির কথা বলেছেন অনেক যাত্রী। কেননা অ্যাপে ব্যবহারের ক্ষেত্রে চালকরা নিবন্ধিত থাকেন বলে তাদের তথ্য কোম্পানিগুলোর কাছে থাকে। কিন্তু চুক্তিভিত্তিক ভাড়ার ক্ষেত্রে চালককে চিহ্নিত করার সুযোগ বেশিরভাগ সময় থাকে না।

বিজ্ঞপ্তিতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) বলেছে, অ্যাপভিত্তিক রাইড শেয়ারিং সেবা দেয়ার জন্য সরকার রাইড শেয়ারিং সার্ভিস নীতিমালা ২০১৭ করেছে। এ নীতিমালা অনুযায়ী বিআরটিএ থেকে রাইড শেয়ারিং এনলিস্টমেন্ট সার্টিফিকেট নিয়ে নেয়ার পর রাইড শেয়ারিং অ্যাপ ব্যবহার করে এ সেবাদান ও গ্রহণ এবং সুনির্দিষ্ট পরিমাণ ভাড়া আদায়ের শর্ত রয়েছে।

‘সম্প্রতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে, কতিপয় মোটরযান চালক এ নীতিমালার শর্ত পালন করছেন না। শর্ত পালন না করে চুক্তিভিত্তিক রাইড শেয়ারিং সেবা প্রদান ও অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা হচ্ছে, যা রাইড শেয়ারিং সার্ভিস নীতিমালার পরিপন্থি।’

অ্যাপ ছাড়া চুক্তিভিত্তিতে রাইড শেয়ারিং সেবা না নিতে যাত্রীদের প্রতিও অনুরোধ করেছে বিআরটিএ।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, চুক্তিভিত্তিক মোটরযান পরিচালনাসহ অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করলে সংশ্লিষ্ট রাইড শেয়ারিং সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান, মোটরযান মালিক, মোটরযান চালক ও সেবাগ্রহণকারীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিআরটিএ বিজ্ঞপ্তিতে বলেছে, চুক্তিভিত্তিক যাত্রী পরিবহন ও অতিরিক্ত ভাড়া আদায়-সংক্রান্ত যে কোনো অভিযোগ বিআরটিএর প্রধান কার্যালয়ের রাইড শেয়ারিং শাখার সহকারী পরিচালককে (ইঞ্জিনিয়ারিং) জানানো যাবে। এ জন্য ০১৭১৪৫৫৬৫৭০, ০২-৫৫০৪০৭৪৫ এই নম্বরে অথবা ade.ride brta.gov.bd এ ঠিকানায় ই-মেইল করতে হবে।


সর্বশেষ..