টেলকো টেক

আইইবির পূর্ণাঙ্গ ডিজিটাল যাত্রা শুরু

বাংলাদেশের প্রকৌশলীদের সর্ববৃহৎ পেশাজীবী সংগঠন ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন, বাংলাদেশ (আইইবি)। সংগঠনটির পূর্ণাঙ্গ ডিজিটাল যাত্রা শুরু হয়েছে। গত মাসে আইইবি’র কাউন্সিল হলে প্রতিষ্ঠানটির ডাইনামিক ওয়েবসাইট ও অ্যাপ উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে এ ডিজিটাল কার্যক্রম শুরু হয়। আইইবির ডাইনামিক ওয়েব পোর্টালে বিশ্বের যেকোনো প্রান্ত থেকে সদস্যপদ প্রাপ্তির জন্য আবেদন, সদস্য নবায়ন ও সদস্য আপগ্রেড করা যাবে। ফি অনলাইন ব্যাংকিং কিংবা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে দেওয়া যাবে। সব ধরনের নোটিস, ইভেন্ট, তথ্য ও সংবাদ সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা লাভ করা যাবে এ ওয়েবসাইটে। সুবিধাজনক স্থানে বসে আইইবি’র সব সেবা পাওয়া যাবে ওয়েবসাইট ও অ্যাপ ব্যবহার করে।

এ ডিজিটাল কার্যক্রম উদ্বোধন করেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আইইবি’র প্রেসিডেন্ট ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক প্রকৌশলী মো. আবদুস সবুর। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন আইইবি’র সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী খন্দকার মনজুর মোর্শেদ। আলোচক হিসেবে ছিলেন আইইবি’র কম্পিউটার কৌশল বিভাগের চেয়ারম্যান ও কানাডিয়ান ইউনির্ভাসিটি অব বাংলাদেশের উপাচার্য প্রকৌশলী অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ মাহফুজুল ইসলাম। নতুন ওয়েবসাইট ও অ্যাপ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করেন কম্পিউটার কৌশল বিভাগের সদস্য প্রকৌশলী আবু হাসান মাসুদ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন একই বিভাগের সম্পাদক প্রকৌশলী মো. রনক আহসান।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ গত ৭১ বছরে দেশের অনেক উন্নয়নমূলক কাজে অংশ নিয়েছে। এমন কোনো ক্ষেত্র নেই যেখানে প্রকৌশলীদের হাতের ছোঁয়া নেই। সব ক্ষেত্রে প্রকৌশলীদের ভূমিকা রয়েছে। আমাদের দেশের প্রকৌশলীদের দক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে। ভবিষ্যতে প্রকৌশলীদের চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের নেতৃত্ব দেওয়ার মতো করে গড়ে তুলতে হবে। তা না হলে আমরা পিছিয়ে পড়ব।

মন্ত্রী আরও বলেন, ওয়েবসাইট যে সোশ্যাল মিডিয়ার চেয়ে বেশি শক্তিশালী হতে পারে তা আইইবি’র ওয়েবসাইট ও অ্যাপ দেখে বোঝা যায়। সোশ্যাল মিডিয়ার অনেক ভুয়া আইডি থাকে, কিন্তু আইইবি’র সোশ্যাল সাইটে তা হবে না। আমি এ ওয়েবসাইটকে ইউটিউব ও ফেসবুকের বিকল্প বলব। বাংলাদেশে যারা ওয়েবসাইট তৈরি করে তারা আইইবি’র ওয়েবসাইট যেন ফলো করে। এ ডিজিটাল কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে আইইবি অনন্য উচ্চতায় থাকবে।

প্রকৌশলী মো. আবদুস সবুর বলেন, একটি উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে বাংলাদেশ অর্থনীতি, ডিজিটালাইজেশন ও অবকাঠামোগত উন্নয়ন করছে। দেশের সব খাত ডিজিটালাইজেশনের আওতায় এসেছে। এরই ধারাবাহিকতায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন, বাংলাদেশ (আইইবি) ডিজিটাল আইইবি হিসেবে আত্মপ্রকাশ করছে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..