প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

আইসিটি মেলা শেষ মুহূর্তে জমজমাট

 

 

প্রযুক্তিপণ্য বিক্রির পাশাপাশি সর্বাধুনিক ও সর্বশেষ প্রযুক্তির ব্যবহার নিশ্চিত করতে প্রতি বছর আয়োজন করা হয় ডিজিটাল আইসিটি মেলা। আইসিটি মেলা-২০১৬ ঘুরে এসে আদ্যোপান্ত জানাচ্ছেন নাজমুল হোসাইন

রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডে কম্পিউটার সিটি সেন্টারে (মাল্টিপ্ল্যান) চলছে ডিজিটাল আইসিটি মেলা-২০১৬। মেলা ঘিরে তরুণ-তরুণীদের আগ্রহ বাড়ছে। ‘সাইবার সিকিউরিটি, দ্য অনলি ওয়ে টু ফ্লাই’ স্লোগানে আয়োজন করা হয়েছে এ মেলা।

আইসিটি মেলা চলবে আগামীকাল পর্যন্ত। মেলায় ৬৫০টি প্রতিষ্ঠান তাদের প্রযুক্তিপণ্য প্রদর্শন ও বিক্রি করছে। প্রায় প্রতিটি পণ্যে থাকছে ছাড় ও উপহার। বিভিন্ন ব্র্যান্ডের আইটিপণ্য এবং ল্যাপটপ দেখা ও কেনার সুযোগ রয়েছে এ মেলায়। প্রতি বছর মেলার আয়োজন করে কম্পিউটার সিটি সেন্টার দোকান মালিক সমিতি। এ ধারাবাহিকতায় এবার আট বছরে পা দিয়েছে মেলাটি।

গতকাল মেলা ঘুরে দেখা যায়, সময় কাটাতে ও প্রয়োজনীয় আইটিপণ্য কিনতে ভিড় লেগে আছে দর্শনার্থীদের। পছন্দসই পণ্য কিনতে দোকান থেকে দোকানে ঘুরছেন অনেকে। মেলায় আসা বেশিরভাগ তরুণের আগ্রহ নতুন প্রযুক্তিপণ্য কেনায়। পাশাপাশি উপহার আর ছাড়ের সুবিধা নিয়ে পণ্য কেনায় আগ্রহের কথা বলেন অনেকে। মেলা ঘিরে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান তাদের সর্বশেষ প্রযুক্তিপণ্য ক্রেতাদের কাছে তুলে ধরছেন। বাংলাদেশের প্রথম সারির আইসিটি পণ্য আমদানিকারক ও ব্যবসায়ীরা তাদের বিক্রয় কেন্দ্রে বিশ্বমানের ল্যাপটপ এবং কম্পিউটারসহ আইসিটি পণ্য প্রদর্শনের ব্যবস্থা করেছেন।

মেলায় প্রধান আকর্ষণ ল্যাপটপ। এতে ফ্রি ইন্টারনেট সুবিধার পাশাপাশি ওয়াই-ফাই ও গেমিং জোন, ফটোগ্রাফি ও সেলফি প্রতিযোগিতা, শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, বিনামূল্যে সিনেমা দেখার সুযোগ এবং পিঠা উৎসবের আয়োজন করা হয়েছে। এছাড়া মেলার অংশ হিসেবে চলছে রক্তদান কর্মসূচি। প্রতি বছরের মতো এবারও মেলায় দেওয়া হয়েছে স্কুল-কলেজের ছাত্রছাত্রীদের ওপর বিশেষ সুবিধা। তারা বিনামূল্যে মেলায় প্রবেশের সুযোগ পাচ্ছে।

মেলা নিয়ে কথা হয় কম্পিউটার সিটি সেন্টার দোকান মালিক সমিতির সভাপতি ও মেলার আহ্বায়ক তৌফিক এহসানের সঙ্গে। তিনি বলেন, প্রতিবারের চেয়ে এবার আরও বড় পরিসরে এবং জাঁকজমকভাবে মেলার আয়োজন করা হয়েছে। আশাতীত সাড়া পেয়েছি আমরা। কয়েকজন তরুণ জানান, এখানে এসে সহজে পণ্যের আপডেট তথ্য পাচ্ছি।

এবারের আইসিটি মেলার প্লাটিনাম স্পন্সর এইচপি, এসার ও গিগাবাইট। ডায়মন্ড স্পনসর ডেল। গোল্ড স্পনসর আসুস ও লেনেভো। মেলার প্রবেশ টিকিট মূল্য ১০ টাকা এবং ছয় দিনব্যাপী এ মেলা চলছে সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত।