প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

আগামীকাল শুরু হচ্ছে উন্নয়ন মেলা

 

শেয়ার বিজ ডেস্ক: জেলা ও উপজেলায় আগামীকাল সোমবার শুরু হচ্ছে তিন দিনব্যাপী উন্নয়ন মেলা। এ মেলার খবর পাঠিয়েছেন আমাদের চট্টগ্রামের নিজস্ব প্রতিবেদক ও খুলনা প্রতিনিধি:

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামে এমএ আজিজ স্টেডিয়ামের প্রশিক্ষণ মাঠে উন্নয়ন মেলা অনুষ্ঠিত হবে। মেলায় সরকারি ও আধাসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রায় ১০০ স্টল তাদের নিজ নিজ কর্মকাণ্ড ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা তুলে ধরবে।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রামে এমএ আজিজ স্টেডিয়াম সংলগ্ন অনুশীলন মাঠে মেলা অনুষ্ঠিত হবে। মেলায় উচ্চ ব্যান্ডউইথ’র সার্বক্ষণিক ইন্টারনেট সুবিধা থাকবে। অংশগ্রহণকারী স্টলে সরকারের নানা উন্নয়ন ও বিভিন্ন সংস্থার উদ্ভাবনী সামগ্রী উপস্থাপন করা হবে। প্রতিদিন সকাল ১০টায় শুরু হয়ে চলবে রাত ১০টা পর্যন্ত। এ মেলায় থাকবে অ্যাম্বুলেন্সসহ একটি স্বাস্থ্য টিম ও ফায়ার সার্ভিসের একটি টিম।

মেলার সামগ্রিক চিত্র তুলে ধরে জেলা প্রশাসক শামসুল আরেফিন জানান, সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। গতবার ৪৩টি স্টল ছিল। এবার ৯০টি স্টল হবে। আমরা কী সেবা দিচ্ছি, তা তুলে ধরা হবে এ মেলার মাধ্যমে। এতে সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের উন্নয়ন কার্যক্রম ও আগামীর পরিকল্পনা বিশদভাবে তুলে ধরবে।

তিনি জানান, মেলায় জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্পগুলো প্রাধান্য পাওয়া উচিত। পাশাপাশি চট্টগ্রামে বন্দর আছে, বিমানবন্দর আছে। সে জন্য সবচেয়ে বড় অর্থনৈতিক অঞ্চলটি চট্টগ্রামের মিরসরাইতে হবে। এছাড়া আনোয়ারায় ৮০০ একর এলাকা নিয়ে হচ্ছে অপর একটি অর্থনৈতিক অঞ্চল। আনোয়ারার এই অঞ্চলে দুই বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করবে চীন। এতে এক লাখ লোকের কর্মসংস্থান হবে। এছাড়াও কর্ণফুলীর তলদেশ দিয়ে নির্মাণ হতে যাওয়া টানেল, কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মেরিন ড্রাইভ, মহেশখালী মাতারবাড়ি বিদ্যুৎকেন্দ্রসহ সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের রেপ্লিকা তুলে ধরার আহ্বান জানানো হয়।

খুলনা: খুলনায় উন্নয়ন মেলা উপলক্ষে গতকাল জেলা প্রশাসন ও পিআইডির উদ্যোগে সার্কিট হাউজ সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে জেলা প্রশাসক জানান, ৯ থেকে ১১ জানুয়ারি খুলনায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে উন্নয়ন মেলা। এতে খুলনার বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি দফতরের আট বছরে সরকারের গৃহীত বহুমুখী উন্নয়ন কার্যক্রম তুলে ধরা হবে। খুলনার সার্কিট হাউজ ময়দানে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেলা চলবে। মেলায় প্রতিদিন সেমিনার, লোকসংগীত ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান থাকবে। ভিডিওচিত্রে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাভিত্তিক চলচ্চিত্র প্রদর্শন ছাড়াও বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রমের প্রদর্শনী থাকবে। এতে জাতীয় উন্নয়নের পাশাপাশি খুলনার উন্নয়নের অগ্রগতি তুলে ধরা হবে। সংবাদ সম্মেলনে স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক হাবিবুল হক খান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) জাহাঙ্গীর হোসেন, বিভাগীয় তথ্য অফিসের উপ-পরিচালক ম. জাভেদ ইকবাল, পিআইডির সিনিয়র তথ্য অফিসার জিনাত আরা আহমেদ, প্রেস ক্লাব সভাপতি এসএম হাবিবসহ সরকারি দফতরের কর্মকর্তা এবং খুলনার প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।