আগামী বছর ছয় লাখ মামলা কমানোর পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে: আইনমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: আগামী বছর ছয় লাখ মামলা কমানোর পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। তিনি বলেন, দেশে প্রায় ৩৭ লাখ মামলার জট তৈরি হয়েছে। এটা নতুন করে তৈরি হয়েছে তা নয়, অতীতের পুঞ্জীভূত সমস্যা। এ জট নিরসন করতে হবে।’ এজন্য বিচারক বাড়ানোর কথা বলেন তিনি।

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘মামলাজট কমানোর জন্য অবকাঠামো নির্মাণের পাশাপাশি বিগত কয়েক বছরে এক হাজার ১৫২ বিচারক নিয়োগ দেয়া হয়েছে। আরও বিচারক নিয়োগ দেয়া হবে, প্রক্রিয়া চলছে। এখন কোনো পদ শূন্য হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তা পূরণ করা হচ্ছে।’

বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে গতকাল এক প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আইনমন্ত্রী এ কথা বলেন।

দুর্গাপূজার মধ্যে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলাকারী সরকার সমর্থক সংগঠনের হলেও বিচার এড়াতে পারবে না বলে আশ্বাস দিয়ে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘ছাত্রলীগ বা অন্য লীগ বা অন্য দলÑএসব নয়, যারা অপরাধ করবে, তাদেরই বিচার হবে। সে যে দলেরই হোক, যে গোষ্ঠীরই হোক, যে জাতিরই হোক। অপরাধী অপরাধীই, তার বিচার হবে।’

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘কেউ যদি ব্যক্তিস্বার্থে অন্যায় করে তাকেও বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে।’

গত ১৩ অক্টোবর কুমিল্লার একটি পূজামণ্ডপে কোরআন অবমাননার অভিযোগ তুলে কয়েকটি মন্দিরে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ হয়। এরপর আরও কয়েকটি জেলায়ও হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলা হয়। এরই মধ্যে গত ১৭ অক্টোবর রাতে রংপুরের পীরগঞ্জে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলা হয়, যার উসকানিদাতা হিসেবে রংপুর কারমাইকেল কলেজ ছাত্রলীগের এক নেতা গ্রেপ্তার হয়েছেন। তাকে ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কারও করা হয়েছে।

সহকারী জজ ও সমপর্যায়ের বিচারকদের জন্য আয়োজিত ৪২তম বিশেষ বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন আইনমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক বিচারপতি নাজমুন আরা সুলতানা।

আইন ও বিচার বিভাগের সচিব মো. গোলাম সারওয়ার ও ইনস্টিটিউটের পরিচালক (প্রশিক্ষণ) মো. গোলাম কিবরিয়াও অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন   ❑ পড়েছেন  ৯০  জন  

সর্বশেষ..