আজকের পত্রিকা পুঁজিবাজার সর্বশেষ সংবাদ

আগামী বাজেটে ডিএসইর ১১ প্রস্তাব

নিজস্ব প্রতিবেদক: আগামী ২০২০-২১ অর্থবছরের জন্য বাজেট তৈরির কাজ চলছে। নিয়ম অনুযায়ী জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) বাজেট প্রস্তাবনার পূর্বে সকলের মতামত নেয়। এবার নভেল করোনাভাইরাসের (কভিড-১৯) কারণে সেটি হচ্ছে না।
এজন্য নতুন অর্থবছরের জন্য বেশ কিছু সুবিধা চেয়েছে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)। প্রস্তাবনাটি ইমেইলে পাঠানো হয় এনবিআরের কাছে। ১১ দফা প্রস্তাবনায় রয়েছে-তালিকাভুক্ত কোম্পানির আয় কর কমানো, নতুন তালিকাভুক্ত কোম্পানিকে ৩ বছরের জন্য করছাড় সুবিধা দেওয়া, লভ্যাংশে করমুক্ত আয়সীমা বাড়ানো।

আজ মঙ্গলবার (১২ মে) প্রস্তাবনাগুলো পাঠানো হয়েছে। এতে ডিএসইর জন্য ১০ বছরের জন্য (২০১৪-১৫ অর্থবছর থেকে ২০২৪-২৫ অর্থবছর) আয়কর অব্যাহতি চাওয়া হয়েছে। এছাড়া ব্রোকারদের শেয়ার লেনদেনে প্রাপ্ত কমিশন আয়ের উপর বিদ্যমান অগ্রিম আয়কর (এআইটি) হার শূন্য দশমিক শূন্য ৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে শূন্য দশমিক শূন্য ১৫ শতাংশ নির্ধারণের প্রস্তাব দিয়েছে ডিএসই। পাশাপাশি এসএমই প্ল্যাটফরমে লেনদেনের কমিশন আয়ে অগ্রীম আয়কর আরোপ না করার কথা বলা হয়েছে।

ডিএসই তালিকাভুক্ত কোম্পানির আয়করের হার ২৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ২০ শতাংশ নির্ধারণ; ব্যাংক, ইন্স্যুরেন্স ও ব্যাংক বহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানের করহার ৩৭ দশমিক ৫০ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৩২ দশমিক ৫০ শতাংশ নির্ধারণের প্রস্তাব দিয়েছে। এছাড়া নতুন তালিকাভুক্ত কোম্পানির ক্ষেত্রে প্রথম বছর ১০ শতাংশ করছাড়ের যে সুবিধা আছে, তার পরিধি বাড়িয়ে ৩ বছরের জন্য এই সুবিধা দেওয়ার প্রস্তাব করেছে ডিএসই।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..