মত-বিশ্লেষণ

আজকের এই দিনে

আধুনিক বাংলা সাহিত্যের অন্যতম রম্যরচয়িতা ও জীবনবোধের নানামুখী অভিজ্ঞতায় পরিপূর্ণ সাহিত্যিক সৈয়দ মুজতবা আলী। বহুভাষাবিদ এই পণ্ডিত বিভিন্ন ভাষার শ্লোক ও রূপক ব্যবহারের মাধ্যমে বাংলা সাহিত্যকে এক স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্য উপহার দিয়েছেন।
সৈয়দ মুজতবা আলী ১৯০৪ সালের এদিনে সিলেট জেলার করিমগঞ্জে জন্মগ্রহণ করেন। সুনামগঞ্জে প্রাথমিক শিক্ষা শেষে তিনি বিশ্বভারতী ও আলীগড় বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়ন করেন। এছাড়া তিনি বার্লিন, বন, প্যারিস ও লন্ডনের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে লেখাপড়া করেন। প্রায় ১০টি ভাষা জানতেন তিনি। কর্মজীবনের শুরুতে প্রভাষক হলেও পরে পেশার পরিবর্তন করে তিনি ইন্ডিয়ান কাউন্সিল ফর কালচারাল রিলেশন্সের সচিব ও অল ইন্ডিয়া রেডিওর কর্মকর্তা হন। ১৯৬১ সালে বিশ্বভারতীর ইসলামের ইতিহাস বিভাগে রিডার হিসেবে যোগদান করে সেখান থেকেই ১৯৬৫ সালে অবসর গ্রহণ করেন।
ছাত্রজীবন থেকেই লেখালেখি শুরু করেন সৈয়দ মুজতবা আলী। শান্তিনিকেতনে অধ্যয়নকালে হাতে লেখা বিশ্বভারতী পত্রিকায় তার কয়েকটি লেখা প্রকাশিত হয়। তিনি সত্যপীর, রায়পিথোরা, ওমর খৈয়াম, টেকচাঁদ, প্রিয়দর্শী প্রভৃতি ছদ্মনামে আনন্দবাজার, দেশ, সত্যযুগ, শনিবারের চিঠি, বসুমতী, হিন্দুস্তান স্ট্যান্ডার্ড প্রভৃতি পত্রপত্রিকায় কলাম লিখতেন। এছাড়া মোহাম্মদী, চতুরঙ্গ, মাতৃভূমি, কালান্তর, আল-ইসলাহ্ প্রভৃতি সাময়িক পত্রেরও তিনি নিয়মিত লেখক ছিলেন। তিনি মোট ৩০টি উপন্যাস, গল্প, প্রবন্ধ ও ভ্রমণকাহিনি রচনা করেছেন। মুজতবা আলীর ডি.ফিল. অভিসন্দর্ভটি বন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রকাশিত হয়। ‘পূর্ব-পাকিস্তানের রাষ্ট্রভাষা’ তার একটি অনবদ্য গ্রন্থ। তিনি ১৯৭৪ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি মৃত্যুবরণ করেন।

আজকের দিনের উল্লেখযোগ্য ঘটনাবলি
# ১৭৮০  বহুতল ভবনে ওঠানামা করার জন্য এলিভেটর বা লিফ্ট আবিষ্কৃত হয়
# ১৯১০  কবি ও সুরকার রজনীকান্ত সেন মৃত্যুবরণ করেন
# ১৯২৯  ৬৩ দিন অনশনের পর বিপ্লবী যতীন দাস লাহোর কারাগারে মৃত্যুবরণ করেন
# ২০০৮  দিল্লিতে এক সিরিজ বোমা হামলায় ৩০ জন নিহত ও ১৩০ জন আহত হন
# ২০১৩  চলচ্চিত্র অভিনেতা আনোয়ার হোসেন মৃত্যুবরণ করেন

সর্বশেষ..