মত-বিশ্লেষণ

আজকের এই দিনে

ভারত উপমহাদেশের ব্রিটিশবিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের শুরুর দিকের সর্বকনিষ্ঠ বিপ্লবী ক্ষুদিরাম বসু। তিনি ভারতে ব্রিটিশ শাসনের বিরোধিতা করেছিলেন। ক্ষুদিরাম বসু ১৮৮৯ সালের ৩ ডিসেম্বর তৎকালীন ব্রিটিশ ভারতের পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার কেশপুর থানার মৌবনী (হাবিবপুর) গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। কিশোর বয়সে পড়াশোনায় মেধাবী হলেও দুরন্তপনা ও দুঃসাহসিক কার্যকলাপের প্রতি তার ঝোঁক ছিল। ১৯০৫ সালে ক্ষুদিরাম সত্যেন বসুর নেতৃত্বে একটি গুপ্ত সমিতিতে যোগ দেন। সেখানে তিনি শরীরচর্চার সঙ্গে সঙ্গে নৈতিক ও রাজনৈতিক শিক্ষা এবং সেইসঙ্গে অস্ত্রচালনা শেখেন। বঙ্গভঙ্গবিরোধী আন্দোলনের অংশ হিসেবে ইংল্যান্ডে উৎপাদিত কাপড় পোড়ানো ও ইংল্যান্ড থেকে আমদানিকৃত লবণবোঝাই নৌকা ডোবানোর কাজে ক্ষুদিরাম অংশগ্রহণ করেন। ক্ষুদিরাম বঙ্গভঙ্গবিরোধী ও ব্রিটিশবিরোধী বিপ্লবী আন্দোলনের ক্রমাগত একাধিক কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করেন। সে সময় ইংরেজ শাসক বঙ্গভঙ্গবিরোধী ও স্বদেশি আন্দোলনের কর্মীদের ওপর কঠোর সাজা ও দমননীতি প্রয়োগ করে আসছিল। সে কারণে যুগান্তর বিপ্লবী দল কলকাতার প্রধান প্রেসিডেন্সি ম্যাজিস্ট্রেট কিংসফোর্ডকে হত্যার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। হত্যার দায়িত্ব পড়ে বিপ্লবী প্রফুল্ল চাকী ও ক্ষুদিরাম বসুর ওপর।

১৯১৮ সালের ৩০ এপ্রিল এই দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে তারা ভুল করে কিংসফোর্ডের গাড়ির মতো অন্য একটি গাড়িতে বোমা মারলে দুজন নিহত হন। এ ঘটনার পর ক্ষুদিরাম পুলিশের হাতে ধরা পড়েন। তিনি বোমা নিক্ষেপের সব দায়িত্ব সম্পূর্ণ নিজের ওপর নিয়ে নেন। কিন্তু অপর সহযোগীর পরিচয় বা কোনো গোপন তথ্য প্রকাশ করেননি। বিচারে তাকে মৃত্যুদণ্ড প্রদান করা হয়। ১৯০৮ সালের এই দিনে (১১ আগস্ট) মুজফ্ফরপুর কারাগারে ফাঁসিতে তার মৃত্যু কার্যকর করা হয়।

আজকের দিনের উল্লেখযোগ্য ঘটনাবলি

#     ১৯৩৭ ব্যারিস্টার ও মানবাধিকারকর্মী সালমা সোবহান জন্মগ্রহণ করেন

#     ১৯৫৫  সাহিত্যিক ও বিপ্লবী অমলেন্দু দাশগুপ্ত মৃত্যুবরণ করেন

#     ২০০৮  অলিম্পিকে মহিলাদের ৪০০ মিটার ফ্রিস্টাইল সাঁতার প্রতিযোগিতা শেষ হয় এবং ২০০ মিটার ফ্রিস্টাইল শুরু হয়

#     ২০১২  কর্নেল (অব.) শাফায়াত জামিল বীর-বিক্রম মৃত্যুবরণ করেন

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..