দিনের খবর প্রচ্ছদ প্রথম পাতা

আবারও লেনদেনে বিমা খাতে একক আধিপত্য

মুস্তাফিজুর রহমান নাহিদ: কয়েক দিন শেয়ারদর হ্রাস পাওয়ার পর আবারও লেনদেনে একক আধিপত্য বিস্তার করছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বিমা খাতের কোম্পানি। গত সপ্তাহের বেশিরভাগ দিনই লেনদেনে এই খাতের একক আধিপত্য দেখা যায়। চলতি সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে গতকালও একই পরিস্থিতি দেখা গেছে। এই দিনও বেশিরভাগ বিনিয়োগকারীর নজর ছিল বিমা কোম্পানির শেয়ারে।

গতকালের বাজার বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়, বিনিয়োগকারীদের পছন্দের তালিকায় প্রথমেই ছিল বিমা খাতের কোম্পানির শেয়ার। যে কারণে শেয়ারদর বৃদ্ধির দৌড়েও এগিয়ে ছিল এ খাতের কোম্পানি। এর জের ধরে দিন শেষে বাড়তে দেখা যায় এ খাতের সিংহভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ারদর। একইভাবে মোট লেনদেনে এ খাতের অবদান ছিল সবচেয়ে বেশি। গতকাল দিন শেষে মোট লেনদেনে বিমা খাতের একক অবদান দেখা যায় প্রায় ৪২ শতাংশ।

কিছুদিন আগে বিমা খাতের অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ারদর হ্রাস পেতে দেখা যায়। মূলত তখন খাত বদল করে অন্য খাতের বিনিয়োগ বাড়তে থাকে। এই সময়ে বিনিয়োগকারীরা মিউচুয়াল ফান্ড এবং ওষুধ ও রসায়ন খাতে বিনিয়োগ বাড়ান। সেখান থেকে বেশিরভাগ বিনিয়োগকারী মুনাফা নিয়ে আবারও খাত বদল করে বিমাতে ফিরে এসেছেন, যে কারণে এ খাতের শেয়ারদর আবারও বাড়তে শুরু করেছে। তবে এ খাতের শেয়ারদর অন্য খাতের তুলনায় বেশি বাড়ছে বলে মনে করেন বাজারসংশ্লিষ্টরা।

তাদের অভিমত, বিমা খাতের সব কোম্পানির শেয়ারদর একযোগে বাড়ছে, যা অস্বাভাবিক। এই ক্ষেত্রে বিনিয়োগকারীদের সতর্ক থাকা জরুরি। খাত বিবেচনায় না নিয়ে তাদের কোম্পানির আর্থিক অবস্থা দেখে বিনিয়োগ করা উচিত।

এদিকে গতকাল বিমা খাতের পরের অবস্থানে ছিল মিউচুয়াল ফান্ড। অধিকাংশ ফান্ডের ইউনিটদর কমলেও মোট লেনদেনে বেশ এগিয়ে ছিল খাতটি। গতকাল দিন শেষে মোট লেনদেনে এ খাতের একক অবদান ছিল প্রায় ১৪ শতাংশ। পরের অবস্থানে ছিল ওষুধ ও রসায়ন খাত। এ খাতের অবদান ছিল ১১ দশমিক ২৪ শতাংশ। 

অন্যদিকে গতকাল সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে কিছুটা ঊর্ধ্বমুখী ছিল পুঁজিবাজার। দিন শেষে ডিএসইর প্রধান সূচক বাড়তে দেখা যায় ১২ পয়েন্ট। লেনদেনে শেষে সূচকের অবস্থান হয় চার হাজার ৮৮১ পয়েন্টে। এদিকে সূচক বৃদ্ধির পাশাপাশি গতকাল বাড়তে দেখা গেছে ডিএসইর লেনদেনও। দিন শেষে ডিএসইতে মোট ৭৬৬ কোটি টাকার শেয়ার এবং মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হতে দেখা যায়।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..