প্রচ্ছদ শেষ পাতা

আয়কর আদায় ছাড়াল এক হাজার কোটি টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক: আয়কর মেলার দিন যত যাচ্ছে করদাতা-সেবাগ্রহীতাদের সংখ্যা তত বাড়ছে। গতকাল মেলার তৃতীয় দিন ছিল সাপ্তাহিক ছুটির দিন। এদিন ঢাকাসহ সারা দেশে করদাতা ও সেবাগ্রহীতাদের ঢল নামে। মেলায় রিটার্ন দাখিল বুথের পাশাপাশি ই-টিআইএন গ্রহণ, ব্যাংক বুথ, মোবাইল ব্যাংকিং বুথসহ সব বুথে করদাতা ও সেবাগ্রহীতাদের ছিল ভিড়। ছুটির দিনে মেলায় স্থান সংকুলান না হওয়ায় অনেককে ফ্লোরে বসে রিটার্ন পূরণ করতে দেখা গেছে। এছাড়া বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে করদাতাদের সংখ্যা বাড়তে থাকে। লাইন ধরে রিটার্ন দাখিল ও কর পরিশোধ করতে দেখা গেছে করদাতাদের। তিন দিনে মেলায় আয়কর আদায় এক হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়েছে।

মেলা সূত্র জানায়, এ বছর দেশের আটটি বিভাগ, ৫৬টি জেলা, ৫৬টি উপজেলাসহ মোট ১২০টি স্পটে আয়কর মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। গতকাল মেলার তৃতীয় দিন সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে মেলা চলে। তৃতীয় দিন আয়কর সংগ্রহ হয়েছে ২৬২ কোটি দুই লাখ ৯২ হাজার ২৫১ টাকা। সেবা নিয়েছেন দুই লাখ ৭১ হাজার ৯৪০ জন। ৮৪ হাজার ৫৩৪টি রিটার্ন দাখিল হয়েছে। এছাড়া নতুন ই-টিআইএন নিয়েছেন চার হাজার ১১ জন। গত তিন দিনে মেলায় মোট এক হাজার ৬৪ কোটি ২৩ লাখ ১৪ হাজার ৯৩৩ টাকা আয়কর সংগ্রহ হয়েছে। সেবা নিয়েছেন ছয় লাখ ৭৬ হাজার ৩৮২ জন। দুই লাখ ২১ হাজার ৬৪৯টি রিটার্ন দাখিল হয়েছে। আর নতুন ই-টিআইএন নিয়েছেন ১১ হাজার ৯৭৯ জন।

সূত্র আরও জানায়, মেলার পরিধি গত বছরের মেলার চেয়ে কয়েক গুণ বৃদ্ধি করা হয়েছে। প্রতিদিন মেলা সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত চলবে। মেলায় আয়কর রিটার্ন দাখিল, ই-টিআইএন গ্রহণ, ই-পেমেন্ট, ই-ফাইলিং ও ই-পেমেন্টের ব্যবস্থা রয়েছে। মেলার বিশেষ আকর্ষণ মোবাইল ব্যাংকিং সুবিধা গ্রহণ করে করদাতারা রকেট, নগদ, বিকাশ, ইউক্যাশ, ইউপে ও শিওর ক্যাশের মাধ্যমে আয়কর জমা দিতে পারছেন। করদাতাদের সুবিধার্থে এবারই প্রথমবারের মতো আয়কর মেলার জন্য একটি পূর্ণাঙ্গ ওয়েবসাইট চালু করা হয়েছে। এর মাধ্যমে করদাতারা ‘ওয়ান স্টপ’ সেবা পাচ্ছেন। সারা দেশের মেলার অবস্থান, ঠিকানা, সময়, তারিখ, গুগল ম্যাপসহ বিস্তারিত তথ্য দেওয়া আছে। করদাতারা মেলায় না এসে ঘরে বসে নির্বিঘ্নে আয়কর রিটার্ন দাখিল করতে পারছেন এবং আয়কর মেলা-সংক্রান্ত দেশব্যাপী সব আয়োজনের হালনাগাদ তথ্যাদি অবলোকন এবং করদাতাদের জন্য প্রয়োজনীয় আয়কর রিটার্ন ফরম, চালান, ই-টিআইএন অ্যাপ্লিকেশন ফরম ইত্যাদি ডাউনলোড করার সুযোগ পাচ্ছেন। করদাতাদের সুবিধার্থে মেডিক্যাল বুথ স্থাপন করা হয়েছে। মেলায় রিটার্ন দাখিল, কর আহরণ, সেবা গ্রহণকারী ও নতুন ই-টিআইন গ্রহণের সংখ্যা বিগত বছরের মেলার তুলনায় উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধি পেয়েছে।

‘কর প্রদানে স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ, নিশ্চিত হোক রূপকল্প বাস্তবায়ন’ এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে গত ১৪ নভেম্বর শুরু হয় সপ্তাহব্যাপী আয়কর মেলা। ঢাকার আয়কর মেলায় করদাতাদের সুবিধার্থে ৫২টি আয়কর রিটার্ন বুথ, ৫৩টি হেল্প ডেস্ক, ব্যাংক বুথ (সোনালী ব্যাংক ১৩টি, জনতা ব্যাংক পাঁচটি এবং বেসিক ব্যাংক চারটি), ই-পেমেন্টের জন্য তিনটি ও ই-ফাইলিংয়ের জন্য দুটি বুথ পৃথক রয়েছে। এছাড়া মেলায় আগত করদাতাদের তাৎক্ষণিকভাবে স্বাস্থ্যসেবা দেওয়ার জন্য একটি মেডিক?্যাল বুথ আছে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন
ট্যাগ »

সর্বশেষ..