বিশ্ব সংবাদ

আয়ারল্যান্ডে ঝুঁকছেন মার্কিন বিনিয়োগকারীরা

যুক্তরাষ্ট্রে উচ্চ করপোরেট কর

শেয়ার বিজ ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সম্প্রতি দেশটির অবকাঠামো উন্নয়নে দুই দশমিক ছয় ট্রিলিয়ন ডলারে উন্নয়ন পরিকল্পনা ঘোষণা করেন। এ পরিকল্পনায় তিনি দেশটির করপোরেট করহার ২১ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ২৮ শতাংশ নির্ধারণ করেন। এর ফলে যুক্তরাষ্ট্রের করপোরেট প্রতিষ্ঠানগুলো ইউরোপের অন্যতম অর্থনীতির দেশ আয়ারল্যান্ডের দিকে ঝুঁকছে। কারণ ডাবলিনে শুধু সাড়ে ১২ শতাংশ করপোরেট কর দিয়ে ব্যবসা করা যায়। খবর: বিবিসি।

মার্কিন বিশ্লেষকদের ধারণা ডাবলিন স্বল্প করহার যুক্তরাষ্ট্রের প্রযুক্তি কোম্পানিগুলোকে টানছে। দেশটির রাজধানী ডাবলিনের কাছে ডক গ্রান্ড খালের সন্নিকটে ইতোমধ্যে মার্কিন প্রযুক্তি জায়ান্ট গুগল আন্তর্জাতিক হেডকোয়ার্টার স্থাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ওই খালের পাশে সামাজিক মাধ্যম সাইট ফেসবুক, যুক্তরাষ্ট্রের বৃহৎ ভ্রমণ সাইট ট্রিপঅ্যাডভাইজর এবং অনলাইন মার্কেটপ্লেস এয়ারবিএনবি, ইনক প্রধান কার্যালয় স্থাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। শিগগিরই যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বহু প্রযুক্তি ফার্ম কার্যালয় খুলতে যাচ্ছে।

গত মাসে আইরিস ফাউন্ডারস জানিয়েছে, এসব খাতে তাদের নতুন এক হাজার কর্মসংস্থান হয়েছে।

দেশটির অভ্যন্তরীণ বিনিয়োগ সংস্থার প্রধান মার্টিন শানাহান মার্কিন কোম্পানিগুলোর বিনিয়োগকে আয়ারল্যান্ডের জন্য অভূতপূর্ব সংকেত হিসেবে বর্ণনা করেছেন। তবে তিনি বলেন, এক্ষেত্রে একটা ঝুঁকি রয়েছে, তা হলোÑযুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বাইডেন বৈশ্বিক কর নিয়মে যদি বড় পরিবর্তন না করেন তবে, আয়ারল্যান্ডে বিনিয়োগ কমে যেতেও পারে।

আয়ারল্যান্ডের কর সুবিধা: গত ২০ বছর ধরে আয়ারল্যান্ডের একটি প্রচলিত কর নিয়ম হলোÑদেশটিতে বৈশ্বিক কোম্পানিগুলো যত মুনাফা করবে, শুধু তার সাড়ে ১২ শতাংশ করপোরেট কর দিতে হবে, যা যুক্তরাজ্যের ১৯ শতাংশ, যুক্তরাষ্ট্রের ২৮ শতাংশ, জার্মানির ৩০ শতাংশ এবং কানাডার সাড়ে ২৬ শতাংশের তুলনায় অনেক কম।

বিশ্লেষকদের ধারণা আইরিশদের সাড়ে ১২ শতাংশ করহার মার্কিন বিনিয়োগকারীদের আকৃষ্ট করেছে।

প্রসঙ্গত, আয়ারল্যান্ডে একটি সবল বাণিজ্য-নির্ভর অর্থনীতি বিদ্যমান। ১৯৯৫-২০০০ অর্থবছরগুলোতে এর প্রবৃদ্ধির হার ছিল ১০ শতাংশ। কৃষি একসময় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খাত ছিল। তবে বর্তমানে শিল্প খাত অধিক গুরুত্বপূর্ণ। জিডিপির ৪৮ শতাংশ এবং রপ্তানির ৮০ শতাংশ শিল্প খাত থেকে আসে। শ্রমশক্তির ২৯ শতাংশ শিল্প খাতে নিয়োজিত।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..