প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

আরও আদিবাসী শিশুদের কবর পেল কানাডা

শেয়ার বিজ ডেস্ক: গত বছরের মতো চলতি বছরও আদিবাসী শিশুদের কবর আবিষ্কৃত হয়েছে কানাডায়। খবর: এনবিসি।

কানাডা এক লাখ ৫০ হাজার আদিবাসী শিশুকে ১৮০০ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত জোরপূর্বক আবাসিক স্কুলে যোগ দিতে বাধ্য করেছিল। সেখানে শিশুদের পরিবার থেকে আলাদা করা হয়। কেড়ে নেয়া হয় তাদের ভাষা ও সংস্কৃতি। এসব শিশু মানসিক, শারীরিক ও যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছিল। এতে প্রাণ হারায় অনেকে শিশু।

এই শিশুদের অনেক কবর গত বছর পাওয়া যায়। গত বছরের মাঝামাঝি ৭৫১ কবর আবিষ্কারের এক সপ্তাহের মাথায় আরও ১৮২টি অচিহ্নিত কবরের সন্ধান পাওয়া যায়। এ নিয়ে এক মাসে বিভিন্ন অঞ্চলে পরপর তিনটি সাবেক আবাসিক স্কুল প্রাঙ্গণে শনাক্ত হয় এক হাজার ১৪৮টি অচিহ্নিত কবর। চলতি বছর এ পর্যন্ত ৯৩টি কবরের সন্ধান পাওয়া গেছে।

উইলিয়ামস লেক ফার্স্ট নেশন (ডব্লিউএলএফএন) গত সোমবার জানায়, ভূতাত্ত্বিক অনুসন্ধানে চলতি বছর এখন পর্যন্ত ৯৩টি কবরের সন্ধান পাওয়া গেছে। ব্রিটিশ কলম্বিয়ার সরকার ব্যবস্থা ডব্লিউএলএফএন নামেও পরিচিত।

কানাডার পশ্চিমাঞ্চলের রাজ্য ব্রিটিশ কলম্বিয়ার সাবেক কামলপস ইন্ডিয়ান আবাসিক স্কুল বা সেন্ট জোসেফ আবাসিক স্কুলের এলাকায় এই কবরগুলো পাওয়া গেছে। ধারণা করা হচ্ছে, কবরগুলো সেন্ট জোসেফ আবাসিক স্কুলের ছাত্রদের। প্রায় এক হাজার আদিবাসী শিশুদের জোর করে সেন্ট জোসেফ স্কুলে রাখা হয়েছিল। স্কুলটি ১৮৮১-১৯৮১ সাল পর্যন্ত চালু ছিল।

অনেক উন্নত দেশের মতো কানাডাও সেখানকার আদিবাসীদের উচ্ছেদ করেছে কিংবা আফ্রিকা মহাদেশ থেকে এনেছে ক্রীতদাস। দেশটি এক সময় সেখানকার আদিবাসী শিশুদের সভ্য করার নামে আবাসিক স্কুলে নিয়ে আসতো। বিভিন্ন গির্জা বিশেষ করে রোমান ক্যাথলিক চার্চ এই স্কুলগুলো পরিচালনা করতেন। ২০১৫ সালে দেশটির ফেডারেল কমিশনও তদন্তের পর এ ঘটনার সত্যতা পায়। তারা কানাডার আবাসিক স্কুল পদ্ধতিকে ‘সাংস্কৃতিক গণহত্যা’ চালানোর দায়ে অভিযুক্ত করেছে।

চলতি মাসের শুরুর দিকে কানাডার ফেডারেল সরকার উইলিয়াম লেক ফার্স্ট নেশনের জন্য ১৯ কোটি কানাডিয়ান ডলার তহবিল ঘোষণা করে। সাবেক আবাসিক স্কুলগুলোর সঙ্গে যুক্ত সমাধিগুলো নিয়ে তদন্ত করার স্বার্থে এ তহবিলের অর্থ ব্যয় করা হবে। একই সঙ্গে নতুন এই কবরগুলো খুঁজে পাওয়ায়, মৃত ও বেঁচে যাওয়া ব্যক্তিদের জন্য ন্যায়বিচার দাবি আরও জোরালো হয়েছে।