স্পোর্টস

আরেকটি বিশ্বকাপ ছোঁয়ার স্বপ্ন গেইলের

CHRISTCHURCH, NEW ZEALAND - DECEMBER 26: Chris Gayle of the West Indies looks on prior to the One Day International match during the series between New Zealand and the West Indies at Hagley Oval on December 26, 2017 in Christchurch, New Zealand. (Photo by Kai Schwoerer/Getty Images)

ক্রীড়া ডেস্ক: এখন পর্যন্ত দুটি বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ পেয়েছেন ক্রিস গেইল। তারপরও ক্ষুধা মেটেনি তার। এজন্য আরেকটি বিশ্বকাপ শিরোপা ছুঁতে চান এ তারকা ব্যাটসম্যান। এজন্য লম্বা সময় পর ফের ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে ফিরেছেন তিনি।

দুই বছর পর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে দেখা যাবে গেইলকে। সিরিজ শুরুর আগে অ্যান্টিগায় সংবাদ সম্মেলনে গেইল জানিয়ে দিলেন তার নতুন শুরুর পেছনে তাড়নার উৎস, ‘আমি জানি, আমি ফিরেছি বলে মনোযোগ এদিকে থাকবে। তবে সত্যি বলতে, এই প্রসঙ্গে যেতেই চাই না। দলীয় দৃষ্টিকোণ থেকে দেখছি আমরা। পোলার্ড খুব শক্ত অধিনায়ক, দলে দারুণ কজন ক্রিকেটার আছে। এই সিরিজ জিতে শুরু করতে চাই, তবে মূল লক্ষ্য অবশ্যই তিনটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ের লক্ষ্যই আমি ঠিক করেছি।’

এ বছরের শেষ দিকে ভারতের মাটিতে অনুষ্ঠিত হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। তার আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বেশ কয়েকটি সিরিজ আছে। এজন্য নিজেদের ফিট রাখার ওপর গুরুত্ব দিচ্ছেন গেইল, ‘বেশ কটি সিরিজ আছে আমাদের সামনে, বিশ্বকাপের আগে অনেক খেলা আছে। এই সিরিজগুলো যত বেশি সম্ভব কাজে লাগাতে হবে। বিশ্বকাপ যদিও এখনও বেশ দূরে, তবে চোখের পলকেই সময়টুকু কেটে যাবে। প্রাণশক্তি ধরে রাখতে হবে আমাদের, ফিট থাকতে হবে এবং দেখিয়ে দিতে হবে যে এই ছেলেদের নিয়েই জয়ের সামর্থ্য আমাদের আছে।’

গেইলের বয়স এখন ৪১। তাই অবসরের ভাবনা ছিল তার। তবে ভক্তদের ভালোবাসার কারণে এখনও খেলা চালিয়ে যাওয়ার উৎসাহ পাচ্ছেন তিনি। এ ব্যাপারে ক্যারিবীয় দানব বলেছেন, ‘খেলা ছেড়ে দেওয়ার কথা সত্যিই ভেবেছিলাম। তখন লোকে বলল, “না, এটা করো না, করো না এটা। থেকে যাও, যতদিন সম্ভব খেলে যাও।” এজন্য ঠিক করলাম, খেলে যাব। এই পথে (জাতীয় দলে খেলা) এগোনোর কথা আসলে তখন ভাবিনি। ভেবেছি, ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট খেলব, মানুষকে বিনোদন দেব, খেলাটায় ক্রিস গেইলের যতটা অবশিষ্ট আছে, বিশ্বজুড়ে সেটা দেখাব। এরপর ডাক পেলাম, তারা জানতে চাইল (ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যানেজমেন্ট) আমি আগ্রহী কিনা। আমি বললাম, ‘হ্যাঁ, ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে খেলতে চাই। আমার হৃদয় সেখানেই। এই সময়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট সংক্রান্ত কোনো কিছুই ফেলে দিতে পারি না। এজন্যই পাকিস্তান থেকে (পিএসএল) ফিরে এসেছি এই দলের অংশ হতে, যেন বিশ্বকাপের আগে দলে একতা গড়ে ওঠে এবং বিশ্বকাপ আমরা যেন জিততে পারি।’

ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের পুরোটাই তিনি ব্যাট করেছেন ওপেনিংয়ে। এবার তাকে একটু নিচে দেখা যেতে পারে। তবে আপত্তি নেই তার, ‘এটা কোনো সমস্যা নয়। স্পিন আমি ভালো খেলি। ওপেনার যেহেতু, ফাস্ট বোলিং যে কারও মতোই ভালো খেলি। ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে যে ভূমিকাই দেওয়া হোক, পালন করতে প্রস্তুত আছি। এটা নিয়ে এখনও আলোচনা হয়নি আমাদের। ওপেনিং করানো না হলে ৩ নম্বর, ৫ নম্বর, যে কোনো জায়গায় খেলতে প্রস্তুত আমি। তখনও আমি বিশ্বের সেরা ৫ নম্বর হব, বিশ্বের সেরা ৩ নম্বর হব।’

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..