প্রথম পাতা বাজার বিশ্লেষণ

আর্থিক ও মিউচুয়াল ফান্ড ছাড়া অন্যান্য খাতে বড় দরপতন

রুবাইয়াত রিক্তা: পুঁজিবাজারে গতকাল ছিল মুনাফা তুলে নেওয়ার হিড়িক। দীর্ঘদিন পর ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) লেনদেন ৬০০ কোটি টাকার দ্বারপ্রান্তে পৌঁছালেও বিক্রির চাপেই বেড়েছে লেনদেন। গতকাল ডিএসইতে ৬২ শতাংশ কোম্পানির দরপতন হয়। দর বেড়েছে মাত্র ২৬ শতাংশ কোম্পানির। ছোট-বড় সব খাতেই বড় দরপতন হয়েছে। বৃহৎ খাতগুলোয় দরপতনের হার তুলনামূলক বেশি ছিল। কেবল আর্থিক ও মিউচুয়াল ফান্ড খাতে বেশিরভাগ কোম্পানির দর বেড়েছে। অন্যদিকে টেলিযোগাযোগ, সেবা ও আবাসন, কাগজ ও মুদ্রণ খাত শতভাগ নেতিবাচক ছিল।
ডিএসইর মোট লেনদেনের ১৯ শতাংশ বা ৮৩ কোটি টাকা লেনদেন হয়ে শীর্ষে উঠে আসে বিমা খাত। এ খাতে ৭৬ শতাংশ কোম্পানির দরপতন হয়। সোনার বাংলা ইন্স্যুরেন্সের সাড়ে আট কোটি টাকা লেনদেন হয়, দরপতন হয় এক টাকা ৩০ পয়সা। প্রায় ছয় শতাংশ বেড়ে গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স দর বৃদ্ধির শীর্ষ দশে অবস্থান করে। প্রকৌশল খাতে লেনদেন হয় ১৩ শতাংশ। এ খাতে ৯০ শতাংশ কোম্পানির দরপতন হয়। কিছুদিন ধরে দর বৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল মুনাফা তুলে নেওয়া হয় এ খাত থেকে। মুন্নু জুট স্টাফলার্সের সাড়ে ১১ কোটি টাকা লেনদেন হয়ে শীর্ষে উঠে এলেও ৫১ টাকা ১০ পয়সা দরপতন হয়। ন্যাশনাল টিউবসের সাড়ে ১০ কোটি টাকা লেনদেন হলেও দরপতন হয় এক টাকা ৭০ পয়সা। ওষুধ ও রসায়ন খাতে লেনদেন হয় ১১ শতাংশ। এ খাতে ৮৪ শতাংশ কোম্পানি দরপতনে ছিল। ব্যাংক খাতে লেনদেন হয় ৯ শতাংশ। গতকালের তুলনায় এ খাতে এক শতাংশ লেনদেন কমেছে। এ খাতে এক-তৃতীয়াংশ কোম্পানির দর বেড়েছে, এক-তৃতীয়াংশের কমেছে এবং এক-তৃতীয়াংসের অপরিবর্তিত ছিল। প্রিমিয়ার ব্যাংকের প্রায় ১০ কোটি টাকা লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ৫০ পয়সা। বস্ত্র খাতে ৮২ শতাংশ কোম্পানির দরপতন হয়। স্টাইল ক্রাফটের প্রায় ১০ কোটি টাকা লেনদেন হলেও প্রায় ৫৫ টাকা দর কমেছে। জ্বালানি খাতে ৪৭ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। সামিট পাওয়ারের সোয়া ১১ কোটি টাকা লেনদেন হয়, দর বেড়েছে ৬০ পয়সা। বিবিধ খাতের বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের সাড়ে ১১ কোটি টাকা লেনদেন হয়। দর বেড়েছে এক টাকা ৮০ পয়সা। আগের দিন থেকে দুই শতাংশ লেনদেন বেড়েছে আর্থিক খাতে। এ খাতে ৮২ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। সাড়ে সাত শতাংশ বেড়ে মাইডাস ফাইন্যান্সিং, সাড়ে ছয় শতাংশ করে ইন্টারন্যাশনাল লিজিং ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস এবং প্রিমিয়ার লিজিং এবং সোয়া ছয় শতাংশ বেড়ে বিডি ফাইন্যান্স দর বৃদ্ধির শীর্ষ দশের তালিকায় উঠে আসে। মিউচুয়াল ফান্ড খাতে লেনদেন বেড়েছে তিন শতাংশ। এ খাতে ৬২ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। দর বৃদ্ধির শীর্ষ দশের তালিকায় উঠে আসে পাঁচ মিউচুয়াল ফান্ড। গ্রামীণফোনের সাড়ে ৯ কোটি টাকা লেনদেন হয়, দরপতন হয় চার টাকা ৪০ পয়সা।

ট্যাগ »

সর্বশেষ..