করপোরেট কর্নার

আল রশিদ ফাউন্ডেশনকে অ্যাম্বুলেন্স দিল এফবিসিসিআই

নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনাভাইরাসে মৃতদের দাফনকাজ সম্পন্ন নিশ্চিত করতে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আল রশিদ ফাউন্ডেশনকে একটি লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্স উপহার দিয়েছে ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (এফবিসিসিআই)। গতকাল এফবিসিসিআই’র সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা এবং হজ এজেন্সিজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিমের কাছে অ্যাম্বুলেন্সটি হস্তান্তর করেন।

এ সময় শেখ ফজলে ফাহিম বলেন, দেশের এ কঠিন সময়ে আল রশিদ ফাউন্ডেশনের মানবিক প্রচেষ্টায় সম্মিলিতভাবে মানুষের পাশে থাকার জন্য এটি এফবিসিসিআই’র ছোট একটি উদ্যোগ। করোনা মোকাবিলায় আমাদের সম্মিলিত প্রচেষ্টা প্রয়োজন। এই জরুরি সময়ে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আল রশিদ ফাউন্ডেশনের সবাইকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাই। আমরা এই সংগঠনের সঙ্গে থাকতে পেরে আনন্দিত।

আল রশিদ ফাউন্ডেশন চেয়ারম্যান শাহাদাত বলেন, জরুরি মুহূর্তের সেবা দান এবং শেষকৃত্য সম্পন্নের জন্য ২৪ ঘণ্টাই আমাদের স্বেচ্ছাসেবীরা প্রস্তুত থাকে। আমাদের এই মানবতার সেবায় বাংলাদেশের ব্যবসায়ীদের একমাত্র শীর্ষ সংগঠন হিসেবে এগিয়ে আসায় এফবিসিসিআই’র সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিমকে ধন্যবাদ জানাই। আমরা চাই এফবিসিসিআই’র মতো অনেক ভিন্ন সংগঠন ও ব্যক্তি আমাদের এই মানবতার সেবায় এগিয়ে আসুক, আর এভাবেই আমরা অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে পারব।

কভিড-১৯ পরিস্থিতিতে সর্বসাধারণের জন্য করোনায় মৃত ব্যক্তির শেষকৃত্য সম্পন্নের কাজ করে যাচ্ছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আল রশিদ ফাউন্ডেশন। কোনো ধরনের বিনিময় বা প্রাপ্তির আশা ছাড়াই মানবিক দায়বোধ থেকেই জীবনকে বাজি রেখে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন এই সংগঠনের ৩০ স্বেচ্ছাসেবক এবং নারীদের জন্য রয়েছেন তিনজন।  এখন পর্যন্ত প্রায় ৩০০ মৃতের দাফন সম্পন্ন করেছে এই স্বেচ্ছাসেবী ফাউন্ডেশনটি। সরকার চারটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনকে করোনায় মৃতদের দাফনের অনুমোদন দিয়েছে, যার মধ্যে আর রশিদ ফাউন্ডেশন একটি।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..