সারা বাংলা

আশুলিয়ায় দুর্বৃত্তদের বিষে মারা গেল পুকুরভর্তি মাছ

প্রতিনিধি, সাভার (ঢাকা): সাভারের আশুলিয়ায় ষড়যন্ত্রমূলক বিষ প্রয়োগে একটি মাছের খামারের প্রায় শত টনের বেশি মাছ মেরে ফেলার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় প্রায় কয়েক কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী মাছের খামারি। গতকাল শুক্রবার সকালে আশুলিয়ার জিরাবো এলাকার দেওয়ান ইদ্রিস আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজ-সংলগ্ন এলাকার প্রাণ প্রকৃতি এগ্রো মাছের খামারে এ ঘটনা ঘটে।

খামার মালিক শহিদুল ইসলাম বলেন, ‘প্রায় ৬০ বিঘা জায়গাজুড়ে দীর্ঘদিন ধরে আমি মাছের চাষ করে আসছি। গতকাল ১৩ আগস্ট হঠাৎ মাছ পানিতে ভেসে বেড়াতে শুরু করে। এ সময় ৩০ থেকে ৪০ জন লোক নিয়ে প্রায় ৩০ টন মাছ অপসারণ করে মাটিতে পুঁতে রাখা হয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘আজ পর্যন্ত প্রায় ১০০ টন মাছ মরে পানিতে ভেসে ওঠে। পুরো এলাকা মরা মাছের দুর্গন্ধে ছড়িয়ে পড়েছে।’ এখন পর্যন্ত প্রায় পাঁচ কোটি টাকার ক্ষতি সাধন হয়েছে বলে অভিযোগ খামারি শহিদুল ইসলামের।

শহিদুলের বড় ভাই শরিফুল ইসলাম আলমাস বলেন, ‘আমরা প্রায় ২২ বছর ধরে মাছের চাষ করি। বিগত ২২ বছরে এ ধরনের কোনো ঘটনা ঘটেনি। কেউ পূর্বশত্রুতার জেরে কীটনাশক পানিতে মিশিয়ে দিতে পারে। এ খামারে ১০ বছর বয়সেরও বড় বড় মাছ ছিল যার সব মরে গেছে। মাছ মারা যাওয়ায় জেলেসহ প্রায় অর্ধশতাধিক কাজের লোকের জীবিকায় তারা বিষ দিয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা সাভার উপজেলা মৎস্য অধিদপ্তরের নথিভুক্ত চাষি। ২০১৬ সালে আমরা সাভার উপজেলার সেরা মৎস্য উদ্যোক্তা নির্বাচিত হয়েছিলাম।’

এ ব্যাপারে সাভার উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা হারুন-অর-রশিদ জানান, ‘বিষয়টি শোনার পর ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আমাদের প্রতিনিধিদল রওয়ানা হয়েছে।’

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..