কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

ইউনিলিভার কনজুমার কেয়ারের শেয়ারদর বেড়েছে ২৭ দশমিক ৬২ শতাংশ

সাপ্তাহিক বাজার

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ইউনিলিভার কনজুমার কেয়ার লিমিটেড গত সপ্তাহে দর বৃদ্ধির তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারদর বেড়েছে ২৭ দশমিক ৬২ শতাংশ। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্রমতে, গত সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন গড় লেনদেন হয়েছে তিন কোটি ৫৩ লাখ ১৭ হাজার ২০০ টাকার শেয়ার। সপ্তাহ শেষে মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ১৭ কোটি ৬৫ লাখ ৮৬ হাজার টাকা।

২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে বিনিয়োগকারীদের জন্য ৫৩০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে কোম্পানিটি। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮১ টাকা ৮৩ পয়সা এবং শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৩২ টাকা ১৪ পয়সা। আর শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ হয়েছে ৮২ টাকা ৮৪ পয়সা।

এদিকে সর্বশেষ কার্যদিবসে কোম্পানিটির শেয়ারদর পাঁচ শতাংশ বা ১৩০ টাকা ৬০ পয়সা বেড়ে প্রতিটি শেয়ার সর্বশেষ দুই হাজার ৭৪২ টাকা ৬০ পয়সায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দরও ছিল দুই হাজার ৭৪২ টাকা ৬০ পয়সা। দিনজুড়ে ১১ হাজার ৩৬০টি শেয়ার মোট ১৬৬ বার হাতবদল হয়, যার বাজারদর তিন কোটি ১১ লাখ ৫০ হাজার টাকা। গত এক বছরে কোম্পানিটির শেয়ারদর এক হাজার ৫২১ টাকা ২০ পয়সা থেকে দুই হাজার ৭৪২ টাকা ৬০ পয়সার মধ্যে ওঠানামা করে।

তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে আমরা নেটওয়ার্কস লিমিটেড। ‘এ’ ক্যাটেগরির কোম্পানিটির শেয়ারদর বেড়েছে ২২ দশমিক ৯৪ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন সাত কোটি ৫১ লাখ ১৪ হাজার ৬০০ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ৩৭ কোটি ৫৫ লাখ ৭৩ হাজার টাকার শেয়ার।

তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছে দি পেনিনসুলা চিটাগং লিমিটেড। ‘বি’ ক্যাটেগরির এ কোম্পানিটির শেয়ারদর বেড়েছে ২২ দশমিক শূন্য চার শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন চার কোটি ৩৮ লাখ ৯৭ হাজার ৮০০ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ২১ কোটি ৯৪ লাখ ৮৯ হাজার টাকার শেয়ার।

এর পরের অবস্থানে থাকা ‘বি’ ক্যাটেগরির মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের শেয়ারদর বেড়েছে ২১ দশমিক ১০ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন দুই কোটি ৭৭ লাখ ৮২ হাজার ৬০০ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ১৩ কোটি ৮৯ লাখ ১৩ হাজার টাকার শেয়ার। আর পঞ্চম অবস্থানে থাকা ‘এ’ ক্যাটেগরির প্রগতি ইন্স্যুরেন্স লিমিটেডের শেয়ারদর বেড়েছে ১৭ দশমিক ৮৩ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন ১৬ কোটি ৪৩ লাখ ৬০ হাজার ৮০০ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ৮২ কোটি ১৮ লাখ চার হাজার টাকার শেয়ার।

তালিকা ষষ্ঠ অবস্থানে থাকা ‘বি’ ক্যাটেগরির রংপুর ডেইরি অ্যান্ড ফুড প্রডাক্টস লিমিটেডের শেয়ারদর বেড়েছে ১৭ দশমিক শূন্য সাত শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন এক কোটি ৮৮ লাখ ৭১ হাজার ৬০০ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ৯ কোটি ৪৩ লাখ ৫৮ হাজার টাকার শেয়ার।

এরপরের অবস্থানে থাকা ‘এ’ ক্যাটেগরির হামিদ ফেব্রিকস লিমিটেডের শেয়ারদর বেড়েছে ১৬ দশমিক ১৭ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন ৪৮ লাখ ৫৩ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে দুই কোটি ৪২ লাখ ৬৫ হাজার টাকার শেয়ার।

তালিকার অষ্টম অবস্থানে থাকা ‘বি’ ক্যাটেগরির ন্যাশনাল ফিড মিল লিমিটেডের শেয়ারদর বেড়েছে ১৩ দশমিক ৫৩ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন ১৬ কোটি ৫০ লাখ ১৩ হাজার ২০০ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ৮২ কোটি ৫০ লাখ ৬৬ হাজার টাকার শেয়ার।

তালিকার নবম অবস্থানে থাকা ‘এ’ ক্যাটেগরির নাভানা সিএনজি লিমিটেডের শেয়ারদর বেড়েছে ১৩ দশমিক ৪৭ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন ২২ লাখ ১০ হাজার ৬০০ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে এক কোটি ১০ লাখ ৫৩ হাজার টাকার শেয়ার।

তালিকার সর্বশেষ অবস্থানে থাকা ‘এ’ কাসেম ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের শেয়ারদর বেড়েছে ১৩ দশমিক ২৫ শতাংশ।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..