Print Date & Time : 29 October 2020 Thursday 7:29 am

ইউসিবিএলের ঋণমান ‘এএ’ ও ‘এসটি-২’

প্রকাশ: August 8, 2020 সময়- 02:43 am

নিজস্ব প্রতিবেদক: ব্যাংক খাতের প্রতিষ্ঠান ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেডের (ইউসিবিএল) ঋণমান অবস্থান (ক্রেডিট রেটিং) নির্ণয় করেছে ইমার্জিং ক্রেডিট রেটিং লিমিটেড (ইসিআরএল)। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

তথ্যমতে, কোম্পানিটি দীর্ঘ মেয়াদে রেটিং পেয়েছে ‘এএ’ আর স্বল্প মেয়াদে পেয়েছে ‘এসটি-২’। ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন এবং অন্যান্য প্রাসঙ্গিক তথ্যের আলোকে এ রেটিং দিয়েছে এনসিআর।

চলতি হিসাববছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকের (এপ্রিল-জুন, ২০২০) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড। আর গত বছরের তুলনায় এ বছরে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ৩৩ দশমিক ৩৩ শতাংশ কমেছে।

প্রাপ্ত তথ্যমতে, দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৪২ পয়সা, যা আগের বছর একই সময় ছিল ৬৩ পয়সা। অর্থাৎ শেয়ারপ্রতি আয় তথা ইপিএস ২১ পয়সা বা ৩৩ দশমিক ৩৩ শতাংশ কমেছে। আর গত ৬ মাসে (জানুয়ারি-জুন, ২০২০) বা দুই প্রান্তিকে ইপিএস হয়েছে ৭৬ পয়সা, আগের বছর একই সময়ে ছিল এক টাকা এক পয়সা। অর্থাৎ প্রথম দুই প্রান্তিক একত্রে বা ছয় মাসের হিসাব অনুযায়ী ইপিএস ২৫ পয়সা কমেছে। ২০২০ সালের ৩০ জুনে শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ২৯ টাকা ৪২ পয়সা, যা ২০১৯ সালের ৩০ জুনে ছিল ২৫ টাকা ৫৮ পয়সা। আর ২০২০ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ দাঁড়িয়েছে ১০ টাকা ৩৪ পয়সা (লোকসান), যা আগের বছর একই সময় চার টাকা ৬৯ পয়সা ছিল।

ডিএসইতে গতকাল কোম্পানিটির শেয়ারদর এক দশমিক ৫৫ শতাংশ বা ২০ পয়সা কমে প্রতিটি সর্বশেষ ১২ টাকা ৭০ পয়সায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দর ছিল ১২ টাকা ৯০ পয়সা। দিনজুড়ে ৭১ হাজার ৬৩৪টি শেয়ার মোট ৬৬ বার হাতবদল হয়, যার বাজারদর ৯ লাখ ২০ হাজার টাকা। দিনভর শেয়ারদর ১২ টাকা ৬০ পয়সা থেকে ১৩ টাকায় হাতবদল হয়। গত এক বছরে শেয়ারদর ১০ টাকা ৭০ পয়সা থেকে ১৬ টাকার মধ্যে ওঠানামা করে।

৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য ব্যাংক খাতের কোম্পানিটি ৫ শতাংশ নগদ ও ৫ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। আলোচিত সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ৪৬ পয়সা এবং ৩১ ডিসেম্বর তারিখে শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ২৮ টাকা ৭৭ পয়সা। আগের বছর একই সময় যা ছিল যথাক্রমে ২ টাকা ১৬ পয়সা ও ২৬ টাকা ২১ পয়সা। আর এই হিসাববছরে শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ হয়েছে ২ টাকা ৬১ পয়সা, আগের বছর যা ছিল ৯ টাকা ৫৫ পয়সা (লোকসান)। ঘোষিত লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য আগামী ৩ সেপ্টেম্বর বেলা ১১টায় অনলাইনে বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হবে।

সর্বশেষ বার্ষিক প্রতিবেদন ও বাজারদরের ভিত্তিতে শেয়ারের মূল্য-আয় অনুপাত ৫ দশমিক ১২ এবং হালনাগাদ অনিরীক্ষিত ইপিএসের ভিত্তিতে ৮ দশমিক ৪৯।