সম্পাদকীয়

ইতিবাচক এফডিআই প্রবৃদ্ধি ধরে রাখার উদ্যোগ নিন

যেকোনো দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নতিতে প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগ বা এফডিআই গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হয়। এফডিআই প্রবাহ যত বেশি হবে, অর্থনীতিও তত সমৃদ্ধ হবে। কিন্তু এফডিআই প্রবাহে বরাবরই খারাপ অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ। দেশের বিভিন্ন খাতে প্রতিবছর বিনিয়োগ বাড়লেও তার বড় অংশই হয় সরকারিভাবে। এর মধ্যে অভ্যন্তরীণ বেসরকারি বিনিয়োগও রয়েছে উল্লেখযোগ্য পরিমাণে। কিন্তু বিদেশি বিনিয়োগের চিত্র সন্তোষজনক নয়। সর্বশেষ এক দশকের মধ্যে ২০১৮ সাল ছাড়া প্রতি বছর এফডিআই প্রবাহের চিত্র ছিল হতাশাজনক। এ খাতে ধারাবাহিকভাবে পিছিয়ে থাকলেও তা থেকে বেরিয়ে আসতে না পারা সংশ্লিষ্টদের ব্যর্থতা বলে অভিমত অনেকের।

‘আঙ্কটাডের প্রতিবেদন: ২০১৯ সালে দেশে এফডিআই প্রবাহ কমেছে ছয় শতাংশ’ শিরোনামে গতকালের দৈনিক শেয়ার বিজে বিশেষ প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। জাতিসংঘ বাণিজ্য ও উন্নয়ন সংস্থার (আঙ্কটাড) প্রতিবেদনের আলোকে এতে বলা হয়েছে, আগের কয়েক বছর পরিস্থিতি খারাপ থাকলেও ২০১৮ সালে বাংলাদেশে এফডিআই প্রবাহ বেড়েছিল প্রায় ৬৭ দশমিক ৯১ শতাংশ। কিন্তু গত বছর ফের বিদেশি বিনিয়োগে ঋণাত্মক প্রবৃদ্ধি দেখা দিয়েছে, কমেছে প্রায় ছয় শতাংশ। ২০১৮ সালে বড় ধরনের বৃদ্ধির পরের বছর তা ধরে রাখতে না পারাটা হতাশাজনক।

অর্থনীতির উচ্চ প্রবৃদ্ধি ধরে রাখা এবং জীবনমান উন্নয়নের জন্য নতুন বিনিয়োগের গুরুত্ব অনেক। কিন্তু এখন দেশের বিনিয়োগ বহুলাংশে সরকারনির্ভর। কিন্তু সরকারি বিনিয়োগে নতুন কর্মসংস্থান হয় সামান্যই। অপরদিকে বেসরকারি বিনিয়োগ হয় বেশিরভাগই উৎপাদনশীল খাতে, বিশেষত শিল্পে। ফলে অনেক কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হয়। বৈদেশিক বিনিয়োগ এলে সেক্ষেত্রে আনুষঙ্গিক আরও অনেক সুযোগ তৈরি হয়। সে দৃষ্টিকোণ থেকে এফডিআই’র অনেক গুরুত্ব থাকলেও বাংলাদেশের পিছিয়ে থাকা উদ্বেগজনক।

খবরেই উল্লেখ করা হয়েছে, ২০১৮ সালে এফডিআই প্রবাহ ছিল দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ৩৬১ কোটি ডলার। অথচ ২০১৯ সালে বাংলাদেশে এফডিআই কমেছে পাঁচ দশমিক ৮২ শতাংশ। এজন্য পুঁজিবাজারে বিদেশি বিনিয়োগ কমে যাওয়া ও ঋণ আকারে আসা বিদেশি বিনিয়োগ কমাকে মূলত দায়ী করা হয়েছে। গত বছর বিদ্যুৎ খাতে এফডিআই প্রবাহ বাড়লেও খাদ্য, ব্যাংক, বস্ত্র ও পোশাক এবং টেলিকম খাতে কমেছে। অথচ এ খাতগুলো দেশের প্রেক্ষাপটে গুরুত্বপূর্ণ। প্রয়োজনীয় অবকাঠামো না থাকা, ব্যবসার বিদ্যমান পরিবেশ, নীতির ধারাবাহিকতার অভাবসহ বিভিন্ন কারণকে এজন্য দায়ী করা হচ্ছে। বিষয়টি আমলে নিয়ে বিদ্যমান সমস্যা সমাধানপূর্বক এফডিআই প্রবাহে বাড়তি মনোযোগ দেওয়া জরুরি। এছাড়া সম্ভাবনাময় খাতগুলোয় বিদেশি বিনিয়োগ আকর্ষণে তৎপরতা বাড়ানো প্রয়োজন বলে আমরা মনে করি।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..