কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

ইতিবাচক প্রবণতায় শেষ হলো প্রথম দিনের লেনদেন

নিজস্ব প্রতিবেদক: গতকাল রোববার সপ্তাহের প্রথম দিন ইতিবাচক প্রবণতায় শেষ হয় উভয় বাজারের লেনদেন। বিশ্বব্যাপী করোনার (কোভিড-১৯) প্রাদুর্ভাবের বিস্তাররোধে গত ২৬ মার্চ থেকে ৩০ মে পর্যন্ত সারা দেশে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে সরকার। সাধারণ ছুটির সঙ্গে দেশের উভয় বাজারের লেনদেনসহ সব কার্যক্রম বন্ধ থাকার পর গতকাল থেকে পুনরায় উভয় বাজারে লেনদেন শুরু হয়। আর সপ্তাহের প্রথম এবং করোনার সাধারণ ছুটি শেষে প্রথম কার্যদিবসে উভয় বাজারে ইতিবাচক লেনদেন হয়েছে। এদিন বেশিরভাগ শেয়ারের দর অপরিবর্তিত ছিল। তবে বাকি শেয়ারগুলোর মধ্যে অধিকাংশের দর বাড়ায় সব কয়টি সূচকের উত্থান হয়। তবে লেনদেন আগের কার্যদিবসের (২৫ মার্চ) তুলনায় কমেছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গতকাল লেনদেনের শুরুতে শেয়ার কেনার চাপ ধারাবাহিকভাবে বাড়ার প্রেক্ষিতে সূচকও ধীরে ধীরে ঊর্ধ্বমুখী হতে থাকে। শেষ পর্যন্ত সূচকের উত্থান অব্যাহত থাকে। অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) একই চিত্র দেখা গেছে।

বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৫২ দশমিক ১৫ পয়েন্ট বা এক দশমিক ৩০ শতাংশ বেড়ে চার হাজার ৬০ দশমিক ৪৪ পয়েন্টে পৌঁছায়। ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক ৩০ দশমিক ৯১ পয়েন্ট বা তিন দশমিক ৩৫ শতাংশ বেড়ে ৯৫১ দশমিক ৬০ পয়েন্টে অবস্থান করে। অন্যদিকে ডিএস৩০ সূচক ৩৪ দশমিক ৫৩ পয়েন্ট বা দুই দশমিক ৫৯ শতাংশ বেড়ে এক হাজার ৩৬৫ দশমিক ৩৭ পয়েন্টে স্থির হয়।

গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হয় ১৪৩ কোটি ২৯ লাখ ২৬ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৩৪৮ কোটি ১৩ লাখ ৮৭ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে লেনদেন কমেছে ২০৪ কোটি ৮৫ লাখ টাকা। এদিন চার কোটি ৩৯ লাখ ৫৬ হাজার ৯৭৬টি শেয়ার ২৮ হাজার ৮৭৩ বার হাতবদল হয়। গতকাল ডিএসইর বাজার মূলধন তিন হাজার ৯৪১ কোটি টাকা বেড়ে দাঁড়িয়েছে তিন লাখ ১৬ হাজার ১৭৬ কোটি ১৬ লাখ ৬৫ হাজার টাকায়। 

গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে ওষুধ ও রসায়ন খাতের স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড। কোম্পানিটির ১৯ কোটি ৬৫ লাখ ৬৩ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। শেয়ারটির দর বেড়েছে ১৭ টাকা ২০ পয়সা। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের আট কোটি ২৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ছয় টাকা। গ্রামীণফোনের ছয় কোটি ৫০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ১৯ টাকা ২০ পয়সা। এরপরের অবস্থানগুলোতে থাকা অরিয়ন ফার্মার ছয় কোটি এক লাখ টাকার, বেক্সিমকোর পাঁচ কোটি ১৭ লাখ, সিলভা ফার্মার চার কোটি ৪৪ লাখ টাকার, সেন্ট্রাল ফার্মার চার কোটি ২৭ লাখ, ইন্দো বাংলা ফার্মার চার কোটি ২২ লাখ, রেকিট বেনকিজারের তিন কোটি ৯০ লাখ, মুন্নু সিরামিকের তিন কোটি ৬৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

১০ শতাংশ বেড়ে দর বৃদ্ধির শীর্ষে ছিল বাংলাদেশ এক্সপোর্ট-ইমপোর্ট কোম্পানি। ফিনিক্স ফাইন্যান্স ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ডের দর ১০ শতাংশ, এসিআইয়ের ৯ দশমিক ৯৬ শতাংশ, সেন্ট্রাল ফার্মার ৯ দশমিক ৯২ শতাংশ, এসিআই ফরমুলেশনের ৯ দশমিক ৯১ শতাংশ, স্কয়ার ফার্মার ৯ দশমিক ৯১ শতাংশ, ইন্দো বাংলা ফার্মার ৯ দশমিক ৮৯ শতাংশ, শাহজিবাজার পাওয়ারের ৯ দশমিক ৮৬ শতাংশ, এক্মি ল্যাবরেটরিজের ৯ দশমিক ৩৮ শতাংশ বেড়েছে।   

অন্যদিকে ১০ শতাংশ দর কমে পতনের শীর্ষে উঠে আসে এবি ব্যাংক লিমিটেড। স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের দর ৯ দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ, অল টেক্সের দর আট দশমিক ৯৭ শতাংশ, প্রিমিয়ার ব্যাংকের দর সাত দশমিক ৪৭ শতাংশ, এক্সিম ব্যাংকের দর সাত দশমিক ২৯ শতাংশ, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের দর ছয় দশমিক ৮১ শতাংশ, ঢাকা ব্যাংকের দর ছয় দশমিক ৬০ শতাংশ কমেছে।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক সিএসসিএক্স ৯২ দশমিক ২৫ পয়েন্ট বা এক দশমিক ৩৪ শতাংশ বেড়ে ছয় হাজার ৯৫২ দশমিক ১৫ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১৪১ দশমিক শূন্য দুই পয়েন্ট বা এক দশমিক ২৪ শতাংশ বেড়ে ১১ হাজার ৪৬৯ পয়েন্টে অবস্থান করে। সিএসইতে ১০৯টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়েছে। দর বেড়েছে ৩১টির, কমেছে ২৪টির এবং ৫৪টির দর অপরিবর্তিত ছিল। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে তিন কোটি ৩৫ লাখ ৭১ হাজার ৩১৭ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ১১২ কোটি ছয় লাখ ৪৪ হাজার ৯৬৪ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে লেনদেন কমেছে প্রায় ১০৯ কোটি টাকা

সিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে ছিল বেক্সিমকো। কোম্পানিটির ৪৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। স্কয়ার ফার্মার ৪৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। এরপরে সেন্ট্রাল ফার্মার ২৮ লাখ টাকার, সিলভা ফার্মার ২৫ লাখ, গ্রামীণফোনের ১৯ লাখ, বাংলাদেশ সাবমেরিন কেব্লের ১৭ লাখ, ইন্দো বাংলা ফার্মার ১৩ লাখ, ফার কেমিক্যালের ১২ লাখ, বিকন ফার্মার ১০ লাখ ও আইএফআইস ব্যাংকের ৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..