বিশ্ব সংবাদ

ইথিওপিয়ায় যুদ্ধবিরতির আহ্বান জাতিসংঘের

শেয়ার বিজ ডেস্ক : দুই সপ্তাহের বেশি সময় ধরে ইথিওপিয়ার তাইগ্রে অঞ্চলের প্রধান রাজনৈতিক দল টাইগ্রে পিপলস লিবারেশন ফ্রন্টের (টিপিএলএফ) সঙ্গে সরকারি বাহিনীর লড়াই চলছে। জাতিসংঘের সহায়তা সংস্থাগুলো ইথিওপিয়ায় দ্রুত অস্থায়ী যুদ্ধবিরতি আহ্বান করেছে। খবর: বিবিসি।

জাতিসংঘের সংস্থাগুলো বলছে, যেসব অঞ্চলে সংঘর্ষ ছড়িয়েছে, সেখানে তাদের যাওয়ার কোনো পথ নেই। তারা দ্রুত মানবিক করিডর স্থাপন করতে চায়। জাতিসংঘের আশঙ্কা, কয়েকশ, এমনকি কয়েক হাজার বেসামরিক লোকজনকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে।

টাইগ্রে থেকে ৩০ হাজারের বেশি শরণার্থী পার্শ্ববর্তী দেশ সুদানে আশ্রয় নিয়েছে। তাদের মধ্যে অর্ধেকের বেশি শিশু। জাতিসংঘ এরই মধ্যে শরণার্থীদের জন্য সাহায্যের আবেদন করেছে। আগামী কয়েক মাসে দুই লাখের বেশি শরণার্থী সুদানে চলে আসতে পারে বলে আশঙ্কা করছে জাতিসংঘ। সুদানে শরণার্থী বেড়ে গেলে দেশটির অস্থিতিশীল হয়ে ওঠার আশঙ্কাও রয়েছে।

দেশটিতে দুই সপ্তাহের বেশি সময় ধরে চলা এ লড়াইয়ে কয়েকশ মানুষ মারা গেছে এবং হাজারো মানুষ এলাকা ছেড়েছে। ওই অঞ্চলের সব যোগাযোগব্যবস্থা বন্ধ হয়ে যাওয়ার সঠিক তথ্য পাওয়া দুষ্কর হয়ে দাঁড়িয়েছে।

জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক সংস্থা (ইউএনএইচসিআর) বলেছে, ইথিওপিয়ায় চরম মানবিক সংকট সৃষ্টি হচ্ছে।

২০১৮ সালে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আবি আহমেদ ক্ষমতায় আসার পর আফ্রিকার এই দেশে রাজনৈতিক অবস্থার আমূল পরিবর্তন শুরু করেন। প্রতিবেশী ইরিত্রিয়ার সঙ্গে দুই দশক ধরে চলা রক্তক্ষয়ী সংঘাতের অবসান ঘটে তারই হাত ধরে। ফলে ক্ষমতায় আসার মাত্র এক বছরের মাথায় নোবেল শান্তি পুরস্কার পান আবি।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..